রাজনীতি

অনির্বাচিত সরকারের অত্যাচার চলছে বাংলাদেশে

শীর্ষবিন্দু নিউজ: দেশে অনির্বাচিত একটি সরকারের জুলুম, অত্যাচার ও নির্যাতন চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া। শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে চিকিৎসা ক্ষেত্রে-মেডিকেল টেকনোলজিষ্টদের পেশাগত উন্নয়নে ও পেশাজীবি আন্দোলনে মরহুম হজরত আলীর ভুমিকা শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

আলোচনা সভার আয়োজন করে মেডিকেল টেকনোলজিট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এম-ট্যাব)। হজরত আলী ওই সংগঠনের সভাপতি ছিলেন। মেডিকেল টেকনোলজিট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (এম-ট্যাব) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ কে এম মুসা লিটনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ড্যাবের প্রথম যুগ্ম মহাসচিব রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীরুল আলম,  সহ-সভাপতি মো. আমিনুল হক, সহ-সভাপতি এমকে মাইউদ্দিন মঞ্জু প্রমুখ।

রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, এই অনির্বাচিত সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতেন হজরত আলী। সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। দল তার কথা মনে রাখবে। তিনি বলেন, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান একাধিক প্রমাণ নিয়ে বলেছেন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি। কিন্তু আওয়ামী লীগের নেতারা মিথ্যাচার করে সত্যকে আরাল করতে চাইছে।

রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন,  সত্য কখনো আরাল করা যায় না। তার প্রমাণ রেখেছেন দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের বড় মেয়ে শারমীন আহমেদ। তার লেখা একটি বই আছে, সেই বইটি পড়লে অনেক সত্য বেড় হয়ে আসবে। তিনি বলেন, জনগণের স্বার্থের জন্য আমরা তিস্তার পানি নিয়ে ২২ ও ২৩ এপ্রিল লংমার্চ করেছি। কিন্ত আওয়ামী লীগ বলেছে এই লংমার্চ কোনো বিশেষ উদ্দেশে। এই লংমার্চে বিএনপি জ্বালাও পোড়াও করতে পারে। কিন্ত আমরা সেটা করিনি। কারণ বিএনপি কখনও জ্বালাও পোড়াও বিশ্বাস করে না।

তিনি বলেন, বিএনপি দেশের সাধারণ মানুষের ভোটে ক্ষমতায় যাওয়ায় বিশ্বাস করে। আওয়ামী লীগের মত বিনা নির্বাচনে ক্ষমতায় যেতে চায় না। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, বিএনপির সকল অনুষ্ঠানে হজরত আলী উপস্থিত থাকতেন। শত বিপদের মধ্যেও তিনি এম-ট্যাব সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে এই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছেন। তিনি বলেন, হজরত আলী গণতন্ত্রের জন্য আন্দোলন করতে করতে শহীদ হয়েছেন। দল সব সময় তার সঙ্গে ছিলো,  থাকবে।

মরহুম হযরত আলীর সহধর্মী জেসমিন আক্তার বলেন,  আমাদের মাঝে আমার স্বামী নেই। কিন্ত তার স্বপ্ন যদি বাস্তবায়ন হয় তাহলে তার আত্মা শান্তি পাবে। তিনি বলেন,  আমি সকলকে অনুরোধ করবো আমার স্বামীর স্বপ্নগুলো বাস্তবায়ন করবেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close