অন্য পত্রিকা থেকে

যুক্তরাষ্ট্রের পর্যবেক্ষণ: বাংলাদেশে মিডিয়ার স্বাধীনতা কমেছে

নিউজ ডেস্ক: পাকিস্তান, শ্রীলংকা, নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপ ও আফগানিস্তানের চেয়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বাংলাদেশের অবস্থান ভালো হলেও ‘ফ্রিডম অব দ্য প্রেস’ রিপোর্টে গতবারের চেয়ে তিনধাপ নিচে নেমে এসেছে বাংলাদেশের অবস্থান। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ফ্রিডম অব দ্য প্রেস ২০১৪-এর বার্ষিক রিপোর্টে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

বিশ্বের ১৯৭টি দেশের মধ্যে পরিচালিত জরিপে দেখা গেছে,  ৬৬টি দেশে গণমাধ্যম মুক্ত ও স্বাধীন নয় ,আংশিক স্বাধীনতা রয়েছে এমন দেশের সংখ্যা ৬৮টি। আর ৬৩টি দেশে মিডিয়া স্বাধীন। ভারতেও গণমাধ্যম পুরোপুরি স্বাধীন নয়। নিউইয়র্ক ফরেন প্রেস সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বৃহস্পতিবার বিশ্বের গণমাধ্যমের অবস্থা তুলে ধরেন যুক্তরাষ্ট্রের পাবলিক অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক সহকারী সেক্রেটারি ডাগ ফ্রান্দটজ ও ফ্রিডম হাউজের প্রজেক্ট ডিরেক্টর ড. কেরিন কারলেকার।

আগামী ৩ মে ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে। ‘ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে’ উপলক্ষ্যে এ রিপোর্ট প্রকাশ করা হলো। গণমাধ্যমের স্বাধীনতার উপর প্রকাশিত বার্ষিক রিপোর্টে বাংলাদেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা আংশিক (পার্টলি ফ্রি) স্বাধীন বা পুরোপুরি স্বাধীন নয় উল্লেখ করে বলা হয়েছে গত বছরের তুলনায় বাংলাদেশে মিডিয়ার স্বাধীনতা কমেছে। সূচকে এবার ১১৫তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

গতবারের তুলনায় তা তিন ধাপ (১১২ তম) নিচে নেমে এসেছে। বাংলাদেশের অবস্থানের পাশাপাশি আছে ফিজি ও কলম্বিয়া। প্রকাশিত রিপোর্টে গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় ভারত ৭৮তম স্থানে রয়েছে। গণমাধ্যমের স্বাধীনতার সূচকে সবচেয়ে নিচে অবস্থান করছে উত্তর কোরিয়া। রাশিয়া, ইরান, আফগানিস্তান, সৌদি আরব, আরব আমিরাত, মিশর, সিরিয়া ও সিঙ্গাপুরেও মিডিয়া স্বাধীন নয় বলে সূচকে উঠে এসেছে।

সূচকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে ইউরোপের দেশগুলো। এতে এক নম্বরে দেখানো হয়েছে সম্মিলিতভাবে নেদারল্যাল্ড, নরওয়ে ও সুইডেনকে। রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যে মিডিয়া পুরোপুরি স্বাধীন উল্লেখ করে দেশ দু’টির অবস্থান যথাক্রমে ৩০তম ও ৩৬তম বলে উল্লেখ করা হয়।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close