জাতীয়

দেশে কৃষি উন্নয়নে কানাডার পটাশ

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: কৃষিকাজে ব্যবহারের জন্য কানাডা থেকে পটাশ আমদানি করছে সরকার। কৃষি উৎপাদন বাড়িয়ে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষেই এই উদ্যোগ। এরই মধ্যে দুই দেশের চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। চুক্তির আওতায় কানাডা থেকে বছরে ৪০ মিলিয়ন ডলারের পটাশ আমদানি করা হবে। বিশ্বের অন্যতম পটাশ উৎপাদনকারী অঞ্চল কানাডীয় প্রদেশ সাসকাচিউয়ান বাংলাদেশকে তার অন্যতম নতুন ত্রেতা হিসেবে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে।

কানাডীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন ও কানাডিয়ান কমার্সিয়াল কর্পোরেশনের মধ্যে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়েছে। সাসকাটুনে এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাসকাচিউয়ানের প্রধানমন্ত্রী ব্র্যাড ওয়াল। বাংলাদেশ ও কানাডার দুই রাষ্ট্র ও কর্পোরেশনের মধ্যে সরকারি পর্যায়ে এটিই এই ধরনের প্রথম বাণিজ্য চুক্তি। ক্যানপোটেক্স লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বছরে ৪০ মিলিয়ন ডলারের পটাশ বাংলাদেশে পাঠাবে।

চুক্তি স্বাক্ষরের পর ওয়াল বলেন, কানাডার পটাশ শিল্পের জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি ও উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। তিনি বলেন, ক্যানপোটেক্স এমন একটি দেশে তার পণ্য সরবরাহ করছে যেখানে কৃষি উৎপাদনে জাগরণ সৃষ্টি করে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই এর অন্যতম লক্ষ। তিনি আরও বলেন, কানাডা থেকে বাংলাদেশে যাওয়া রপ্তানিযোগ্য পণ্যে এটি একটি নতুন সংযোজন।

সাসকাচিউয়ান প্রদেশ থেকে গতবছরে ৩২৬ মিলিয়ন ডলারের পণ্য বাংলাদেশে রপ্তানি হয় যা দেশটি থেকে বাংলাদেশে মোট রপ্তানির অর্ধেক।  প্রাথমিক পর্যায়ে প্রদেশটি থেকে বাংলাদেশ আসতো কৃষিপণ্য। যার মধ্যে রয়েছে ডাল, গম, ক্যানোলা বীজ। ২০১৩ সালে এই রপ্তানির হার আগের বছরের তুলনায় ১৭ শতাংশ বেশি ছিলো। এর আগে ২০১১ সালের মার্চে বাংলাদেশ সফরে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেন ব্র্যাড ওয়াল। সাসকাচিউয়ানের কোনো প্রধানমন্ত্রীর সেটিই ছিলো প্রথম বাংলাদেশ সফর। ওই আলোচনার ধারাবাহিকতায় পটাশ আমদানির চুক্তি স্বাক্ষর করলো বাংলাদেশ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close