জাতীয়

দাবীর প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপতিদের তালিকা চেয়েছে বঙ্গভবন

শীর্ষবিন্দু নিউজ: বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতিদের মেয়াদকালসহ নামের তালিকা চেয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে চিঠি পাঠিয়েছে বঙ্গভবন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমান জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি দাবি করার পর এ নিয়ে আলোচনার মধ্যে রাষ্ট্রপতির কার্যালয় থেকে সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে এই চিঠি পাঠানো হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব জান্নাতুন নাঈম সাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিদের মেয়াদকালসহ নামের তালিকা বঙ্গভবনে সংরক্ষিত নেই। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিদের প্রকৃত তালিকা সংরক্ষণ, প্রয়োজনে ব্যবহার এবং বঙ্গভবনের ওয়েবসাইটে এ তালিকা আপলোড করার জন্য রাষ্ট্রপতিগণের জীবনবৃত্তান্তসমূহ ক্রমানুসারে নাম ও কার্যকাল সমন্বিত একটি তালিকা প্রয়োজন।

তালিকা চাওয়ার বিষয়ে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব শেখ আলতাফ আলী বলেন, বঙ্গভবনের ওয়েবসাইট এবং শত বছরের ইতিহাস আপডেট করার জন্য সাবেক রাষ্ট্রপতিদের তালিকা চাওয়া হয়েছে। ক্যাবিনেট ডিভিশন থেকে যেহেতু এসব তালিকা করা হয় তাই নির্ভুল নামের বানানসহ তালিকা পেতে তাদের চিঠি দেয়া হয়েছে। বঙ্গভবনের ওয়েবসাইটে ১৬ জন সাবেক রাষ্ট্রপতির তালিকা রয়েছে, তবে মেয়াদকাল উল্লেখ নেই। ওই তালিকাতেও জিয়াউর রহমানের নাম সাত নম্বরে রয়েছে। জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন বলে গত ২৫ মার্চ লন্ডনের একটি অনুষ্ঠানে দাবি করেন তার ছেলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

লন্ডনে অবস্থানরত তারেক আলোচনায় বলেন, বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি এবং স্বাধীনতার ঘোষক জিয়া। স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন আমাদের নেতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর রক্তক্ষয়ী সামরিক অভ্যুত্থান, পাল্টা অভ্যুত্থানের পরিণতিতে রাষ্ট্রক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়া জিয়াকে স্বাধীনতার ঘোষক না বলতে আদালতের নির্দেশ রয়েছে। তারেকের বক্তব্যের ধারাবাহিকতায় খালেদা জিয়াও গত ২৭ মার্চ তার স্বামীকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে দাবি করেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close