এশিয়া জুড়ে

নিখোঁজ হওয়া মালয়েশীয় উড়োজাহাজটি দুর্ঘটনা নয়, পরিকল্পিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: এ বছরের ৮ মার্চ ২৩৯ জন যাত্রী ও ক্রু নিয়ে মালয়েশীয় উড়োজাহাজটির নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি শুধুমাত্র নিছক একটি দুর্ঘটনা ছিল না। এটি ‘পরিকল্পিত’ ও ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ ছিল বলে একটি তদন্তকারী দল এ তথ্য জানিয়েছে।

এ দলে একজন বাণিজ্যিক পাইলট ও সাংবাদিক রয়েছেন। পাইলট ইওয়ান উইলসন এবং সাংবাদিক জিওফ টেইলর এ দলে কাজ করছেন। তারা জানান, উড়োজাহাজটি ইচ্ছে করে তাকে রুটচ্যুত করা হয়েছে। ফলে, এটির গন্তব্য পথ শনাক্ত করা যায়নি।

উইলসন একজন অভিজ্ঞ পাইলট। তিনি এর আগে দুটো এয়ারলাইন্সে পাইলট হিসেবে কাজ করেছেন। তিনি পাইলট হিসেবে মালয়েশিয়ায় ফ্লাইট পরিচালনা করেছেন। তিনি তদন্তকারী দলের সদস্য এবং নিখোঁজ পাইলট জাহেরি আহমেদ শাহের আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে কথাও বলেছেন। পাইলট উইলসন ও নিউজিল্যান্ডের সাংবাদিক টেইলর নিখোঁজ উড়োজাহাজের প্রকাশিত সব তথ্য ও অন্যান্য দেশের উড়োজাহাজ সম্পর্কিত সব তথ্য খতিয়ে দেখেন।

৮ মার্চ মালয়েশিয়ান উড়োজাহাজটি নিখোঁজ হওয়ার পর বিভিন্ন দেশের জলযান এবং বিশেষায়িত বিমান অনেক খোঁজাখুঁজির পরও উড়োজাহাজটির কোনো সন্ধান পায়নি। উড়োজাহাজ দুর্ঘটনার বিভিন্ন তথ্য ঘাটাঘাটি করে এই পাইলট ও সাংবাদিক জানান, মালয়েশীয় উড়োজাহাজটি নির্দিষ্ট রুট থেকে সরে গেছে। পরে তা দক্ষিণ ভারত মহাসাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। কিন্তু কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে এটা হতো না।

তারা বলেন, আমাদের বিশ্বাস, ফ্লাইটটির চালানোর দায়িত্ব অন্য কেউ নিয়েছিলেন। এদিকে, চীন ও নেদারল্যান্ডসের জাহাজ মালয়েশীয় উড়োজাহাজের সন্ধানে তৎপরতা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close