Featuredঅন্য পত্রিকা থেকে

১৫শ’ কোটি টাকার পাট রফতানি কমেছে

ঊর্মি মাহবুব: পাট রফতানি বাড়াতে নানা পদক্ষেপ নিলেও সবই যেন ব্যর্থ হয়েছে। গত অর্থ বছরের প্রথম ১১ মাসের তুলনায় চলতি অর্থ বছর ২০১৩-১৪ বছরের জুলাই-মে মাসে রফতানি আয় কমেছে ১ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোসহ সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্য অনুযায়ী, ২০১২-১৩ অর্থ বছরের জুলাই-মে মাস পর্যন্ত রফতানি আয় হয় প্রায় ৭ হাজার ৩৫৮ কোটি টাকা। অথচ পাট রফতানি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের ১১ মাসে ১ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৮৭১ কোটি টাকা। সে হিসাবে আগের অর্থ বছরের তুলনায় পাটের রফতানি আয় কমেছে ২০ দশমিক ২১ শতাংশ। পাট রফতানি কারক দেশগুলোতে বাংলাদেশের মিশন কাজ করলেও তেমন কোনো সুফলই আসছে না বলে ইপিবি সূত্র জানিয়েছে।

রফতানি বাড়ানোর লক্ষ্যে দেশের বাইরে কর্মরত ইপিবির ৪৯ শতাংশ মিশনই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে পাট রফতানিতে। বাংলাদেশের পাট ভারত, পাকিস্তান, চীন, ব্রাজিল, থাইল্যান্ড, আইভোরি কোস্টসহ বেশ কয়েকটি দেশে পাট রফতানি হয়। চলতি অর্থবছরে গত অর্থ বছরের তুলনায় কাঁচা পাট রফতানি কমেছে ৪৮ শতাংশ। গত অর্থ বছরে কাঁচা পাট রফতানিবাবদ ২১৮ মিলিয়ন ডলার আয় করে বঅংলাদেশ। যা চলতি বছরে ১১৩ মিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে।

এ দিকে চলতি অর্থ বছরে পাট রফতানি কমে যাওয়ার ক্ষেত্রে গত বছরের রাজনৈতিক অস্থিরতাকেই দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা। তবে সরকারের পাট শিল্প নীতি সংশোধনেরও দাবি জানিয়েছেন তারা। বাংলাদেশ রফতানিকারক সমিতির সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী বলেন, পাট বাংলাদেশের সোনালী আঁশ। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরে এই শিল্প নানা সমস্যায় পড়েছে। রফতানিও কমেছে। এই শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে লাখ লাখ মানুষের জীবন হুমকির মুখে পড়ছে। এজন্য সরকারকে শিগগির এ শিল্পের দিকে নজর দেওয়া উচিত বলেও মনে করেন তিনি। সালাম মুর্শেদী বলেন, নগদ প্রণোদনাসহ পাট ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনীয় সুবিধাদি দেওয়া উচিত।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশের পাটজাত দ্রব্য রফতানি কমেছে ৫১ দশমিক ৯১ শতাংশ। গত অর্থ বছরে প্রায় ১ হাজার ৬৫৩ কোটির টাকা পাটজাত পণ্য রফতানি হলেও বর্তমান অর্থ বছরের কমে দাঁড়িয়েছে ৭৯১ কোটি টাকা। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে পাট রফতানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়েছিল প্রায় ১১ কোটি ৬৩ লাখ ডলার। এর মধ্যে ১১ মাসে আয় হয়েছে প্রায় ১০ কোটি ডলার। এক মাসে প্রায় দেড় কোটি ডলার পাট রফতানি করা সম্ভব হলেই পাট রফতানির লক্ষমাত্রা অর্জন সম্ভব হবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close