এশিয়া জুড়ে

ধ্বংসের সময় মালয়েশিয়ার বিমানটি স্বয়ংক্রিয় চলছিলো

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিখোঁজ মালয়েশিয়ার বিমান এমএইচ-৩৭০ এর তল্লাশির জায়গা পরিবর্তন করতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। তাদের ধারণা, ধ্বংস হওয়ার আগে জ্বালানি না ফুরানো পর্যন্ত বিমানটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলছিলো। ফলে এখন যেখানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে সেখানে কোনো ফল পাওয়া যাবে না।

তবে অস্ট্রেলিয়ার কর্তৃপক্ষ এটা নিশ্চিত করতে পারছে না, ঠিক কখন থেকে বিমানটি স্বয়ংক্রিয় অবস্থায় চলছিলো। বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার পরিবহন মন্ত্রী ওয়ারেন ট্রুস ক্যানবেরায় সাংবাদিকদের বলেন, উপগ্রহ থেকে প্রাপ্ত মালয়েশিয়ার বিমান এমএইচ-৩৭০ এর নতুন তথ্যের ভিত্তিতেই পুরনো জায়গা পরিবর্তন করে নতুন জায়গায় তল্লাশির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গত ৮ মার্চ ২৩৯ জন যাত্রী নিয়ে মালয়েশিয়া থেকে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে যাওয়ার সময় মালয়েশিয়ার বিমানটি নিখোঁজ হয়। যাত্রীদের অধিকাংশই চীনা নাগরিক। পরে কর্তৃপক্ষ বিমানটি ধ্বংস হয়েছে বলে ঘোষণা দেয়। কিন্তু বিমানের ধ্বংসাবশেষ খোঁজে এখনো ভারত মহাসাগরের বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার পরিবহন নিরাপত্তা ব্যুরোর প্রধান মার্টিন ডোলান বলেন, তল্লাশির স্থান পরিবর্তন যৌক্তিক। গত এক সপ্তাহ ভারত মহাসাগরের দক্ষিণে সমুদ্রের নীচে ৩৩০ বর্গমাইল এলাকায় একটি স্বয়ংক্রিয় ড্রোন তল্লাশি চালিয়েছে। এখন আরো দক্ষিণে যাওয়া হবে। এখন আমরা নিশ্চিত ধ্বংসের আগে বিমানটি স্বয়ংক্রিয় ছিলো, ফলে সেখানে তল্লাশি চালিয়ে কোনো লাভ হবে না, বলেন মার্টিন ডোলান।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close