অর্থনীতি

২০১৩-১৪ অর্থবছরে মূল্যস্ফীতি ৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ

শীর্ষবিন্দু অনলাইন ডেস্ক: গড় হিসাবে ৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ মূল্যস্ফীতি নিয়ে শেষ হল ২০১৩-১৪ অর্থবছর। এ হিসাবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বাজেটে বার্ষিক গড় মূল্যস্ফীতি ৭ শতাংশে আটকে রাখার যে ঘোষণা দিয়েছিলেন তা শেষ পর্যন্ত সম্ভব হল না।

বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) বলেন, পয়েন্ট-টু-পয়েন্ট ভিত্তিতে (মাসভিত্তিক) গেল অর্থবছরের শেষ মাস জুনে ৬ দশমিক ৯৭ শতাংশ মূল্যস্ফীতি হয়েছে। আগের মাস মে-তে এ হার ছিল ৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ। বার্ষিক গড় হিসাবে (১২ মাসের গড়) মূল্যস্ফীতির হার ৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ হয়েছে বলে জানান তিনি।

২০১২-১৩ অর্থবছরে গড় মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৬ দশমিক ৭৮ ভাগ। ২০০৫-০৬ বছরকে ভিত্তি বছর ধরে মূল্যস্ফীতির এই হিসাব করেছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো-বিবিএস।

লেটাস কামাল বলেন, চিনি, ভোজ্যতেলসহ আমদানি করা সব পণ্যের দাম কমেছে। আর সে কারণেই জুন মাসে সার্বিক মূল্যস্ফীতি কমেছে। তবে রোজার ঈদের প্রভাবে খাদ্য বহির্ভূত মূল্যস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে বলে জানান তিনি। জুন মাসে খাদ্যবহির্ভূত মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক ৪৫ শতাংশ। মে মাসে এ হার ছিল ৫ দশমিক ১৬ শতাংশ।

grocery-shop.jpgবিবিএসের তথ্যে দেখা যায়, গ্রামের পাশাপাশি শহরেও মূল্যস্ফীতি কমেছে।গ্রামে জুন মাসে পয়েন্ট-টু পয়েন্ট ভিত্তিতে সার্বিক মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৬ দশমিক ৭৩ শতাংশ। মে মাসে এ হার ছিল ৭ দশমিক ২৭ শতাংশ। শহরে জুনে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৭ দশমিক ৪২ শতাংশ; মে মাসে যা হয়েছিল ৭ দশমিক ৯২ শতাংশ।

৫ জুন জাতীয় সংসদে চলতি ২০১৪-১৫ অর্থবছরের বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, ২০১৩-১৪ অর্থবছর শেষে গড় মূল্যস্ফীতি ৭ শতাংশে নেমে আসবে। ২০১৪-১৫ অর্থবছর শেষে এ হার আরো কমে আসবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। শেরেবাংলা নগরে এসইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনা সচিব ভূঁইয়া সফিকুল ইসলাম, আইএমইডি সচিব সুরাইয়া বেগম, পরিসংখ্যান বিভাগের সচিব নজিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close