জাতীয়

ফারুকী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলা দায়ের: খুনিদের ধরতে সরকারকে আল্টিমেটাম

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: শাইখ নূরুল ইসলাম ফারুকী সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের খতিব ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের উপস্থাপক নুরুল ইসলাম ফারুকী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলা দায়ের করেছেন তার ছেলে ফয়সাল ফারুকী। বুধবার মধ্যরাতে ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের করেন তিনি। এ ঘটনায় তিন প্রত্যক্ষদর্শীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

এদিকে, উপস্থাপক শাইখ নুরুল ইসলাম ফারুকীর হত্যাকারীকে ধরতে সরকারকে ২৪ ঘণ্টার সময় বেঁধে (আল্টিমেটাম) দিয়েছে ইসলামী ছাত্র সেনা। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামে এক সংবাদ সম্মেলনে ইসলামী ছাত্র সেনার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জামালউদ্দিন রব্বানি এ ঘোষণা দেন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুনিদের গ্রেপ্তার করা না হলে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়। বেলা তিনটার দিকে শাইখ নুরুল ইসলাম ফারুকীর হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আরেকটি সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা।

ফারুকীর ছেলের দায়েরকৃত মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, বুধবার রাতে ডাকাতি করতে এসে পূর্ব রাজাবাজারের বাসায় নুরুল ইসলাম ফারুকীকে গলা কেটে হত্যা করে চলে যায় দুর্বৃত্তরা। ফারুকী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের নেতা। তিনি ইসলামিক ফ্রন্টের প্রেসিডিয়াম সদস্য। চ্যানেল আই’র জনপ্রিয় অনুষ্ঠান কাফেলা ও শান্তির পথের উপস্থাপক ছিলেন তিনি। হাইকোর্ট মাজার মসজিদে শুক্রবারে নামাজও পড়াতেন তিনি। এছাড়া হজে লোক পাঠাতেন ফারুকী। হজের কথা বলেই কয়েকজন যুবক রাতে বাড়িতে ঢুকে এই হত্যাকাণ্ড ঘটায় বলে তার পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে।

আজ সকালে শাইখ নুরুল ইসলাম ফারুকীকে হত্যার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম শহরে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ হয়েছে। মুরাদপুর মোড় এলাকায় মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও তাঁর অনুসারীরা এ কর্মসূচি পালন করেন। সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টাব্যাপী তাঁরা ওই এলাকায় অবস্থান করেন। এ সময় অর্ধশতাধিক টায়ারে আগুন ও সড়কে প্রতিবন্ধক ফেলে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

রাজধানীর পূর্ব রাজাবাজারে নিজ বাসায় গতকাল বুধবার রাতে সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের খতিব এবং বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের উপস্থাপক শাইখ নুরুল ইসলাম ফারুকী খুন হন। দুর্বৃত্তরা বাসায় ঢুকে হাত-পা বেঁধে তাঁকে গলা কেটে খুন করে। ফারুকী বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের (মতিন) সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও আহলে সুন্নাতের নেতা ছিলেন। এ ছাড়া তিনি ইসলামিক মিডিয়া নামে একটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ছিলেন। এই হত্যার প্রতিবাদে রাত নয়টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ফারুকীর ভাড়া বাসার সামনের সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন মোহাম্মদপুরের তৈয়বিয়া কাদেরিয়া কামিল মাদ্রাসার কয়েক শ শিক্ষার্থী। তাঁরা এই হত্যাকাণ্ডের জন্য জামায়াত-শিবিরকে দায়ী করে স্লোগান দেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close