জাতীয়

সরকারিভাবে বিদেশে লোক পাঠাতে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: মালয়েশিয়া, লিবিয়া ও ইরাকে বায়রার বদলে সরকারিভাবে লোক পাঠানোর সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। বৃহস্পতিবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুনের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মো. শাহাব উদ্দিন, মো. ইসরাফিল আলম এবং মো. আয়েন উদ্দিন বৈঠকে অংশ নেন। সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সিজ’র (বায়রা) কার্যক্রমকে মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণে রেখে মালয়েশিয়া, ইরাক এবং লিবিয়া ছাড়া অন্যান্য দেশে কর্মী প্রেরণে কর্মতৎপরতা বৃদ্ধি করার সুপারিশ করা হয়েছে।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য হুইপ মো. শাহাবউদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, ওই তিন দেশে আমাদের দেশের দরিদ্র কর্মীরা বেশি যায়। জি টু জি পদ্ধতিতে গেলে খরচ কম হয়। এজন্য বায়রার পরিবর্তে মন্ত্রণালয়কে ওই দেশগুলোতে কর্মী পাঠানোর ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে মালয়েশিয়া সরকারের শর্ত অনুযায়ী সম্প্রতি সরকারিভাবে সে দেশে লোক পাঠানো শুরু করে বাংলাদেশ, যা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে আন্দোলনে নামে বেসরকারি জনশক্তি রপ্তানিকারকদের সংগঠন বায়রা। মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর সুযোগ দেয়া না হলে জনশক্তি রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ারও হুমকি দিয়েছিল সংগঠনটি।

গত এপ্রিল মাসে বায়রা ১১ দিন ধর্মঘট করলেও শেষ পর্যন্ত প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন তাদের আবেদন নাকচ করে দেন। শাহাবউদ্দিন বলেন, আমরা বলছি না যে বায়রা কর্মী পাঠাতে পারবে না। খরচের দিক চিন্তা করে এই সুপারিশ করা হয়েছে। তবে সরকারের নির্ধারিত সব নিয়ম মেনে বায়রাও কর্মী পাঠাতে পারবে।

সংসদীয় কমিটির বৈঠকে জানানো হয়, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে গত ৩০ জুন পর্যন্ত সরকারি জনশক্তি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল) এর মাধ্যমে মোট ৪৩ হাজার ৮০৩ জন পেশাজীবী, দক্ষ ও স্বল্পদক্ষ কর্মী বিভিন্ন দেশে চাকরিতে যোগ দিয়েছেন। লিবিয়া ও ইরাকে কর্মরত বাংলাদেশিদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় মন্ত্রণালয়কে আরো তৎপর হওয়ারও সুপারিশ করা হয় বৈঠকে। 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close