Featuredশরীর স্বাস্থ্য

দীর্ঘক্ষণ কাজের সঙ্গে বেশি ধূমপানের সম্পর্ক

 শরীর স্বাস্থ্য ডেস্ক: আপনি কি দিনের অধিকাংশ সময় কর্মব্যস্ততার মধ্যে পার করেন এবং আপনার কি ধূমপানের বদভ্যাস রয়েছে? নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা অন্যদের তুলনায় দিনের অধিকাংশ সময়টাতে বেশি কর্মব্যস্ত থাকেন, তারা অনেক বেশি ধূমপান করেন। বৃটেনের লাফবরো ইউনিভার্সিটির গবেষকরা ১৯ বছর ধরে ২০ হাজারেরও বেশি ধূমপায়ীর ওপর গবেষণা চালিয়ে এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন।

সোশ্যাল সায়েন্স অ্যান্ড মেডিসিন সাময়িকীতে গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা আইএএনএস। বিশ্বে প্রতি বছর প্রায় ৬০ লাখ মানুষ ধূমপানের কারণে সৃষ্ট প্রাণঘাতী রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছে। অথচ, ধূমপায়ীর সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে।

গবেষকরা বলছেন, ধূমপায়ীরা যখন সপ্তাহে ৪০ ঘণ্টার বেশি কর্মব্যস্ত থাকেন, তারা ধূমপানে আরও বেশি আসক্ত হতে শুরু করেন এবং ধূমপান কমানোর পরিবর্তে তারা আরও বেশি বেশি ধূমপান করেন। কাজের ঘণ্টা যতো বাড়ে, তাদের ধূমপান ছেড়ে দেয়া সম্ভাবনাটাও কমতে থাকে। যারা সপ্তাহে ৪০ থেকে ৬০ ঘণ্টার বেশি ধূমপান করেন, তাদের ধূমপান ত্যাগের সম্ভাবনা অর্ধেকেরও কম।

গবেষকরা ১৯ বছর ধরে ২০ হাজারেরও বেশি ধূমপায়ীকে পর্যবেক্ষণের পর সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন। ধূমপায়ীরা যদি তার কাজের ক্ষেত্র ও কাজটাকে পছন্দও করেন, সে ক্ষেত্রেও কোন লাভ হয় না। কারণ, ধূমপায়ীরা ধূমপানটাকে আনন্দের এবং মানসিক চাপ কমানোর কাজ হিসেবেই মনে করেন। ধূমপানের অভ্যাস থাকলে, গবেষকরা এখনই তা ছেড়ে দেয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close