অন্য পত্রিকা থেকে

নিউইয়র্ক ম্যারাথনে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করলেন সাবারি

শিহাবউদ্দীন কিসলু, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট 2014-11-03 16:52:00

নিউইয়র্ক ম্যারাথনে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করলেন সাবারি

 আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: প্রবাসে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করলো   বাংলাদেশি তরুণী সাবারি হক। বাবাকে কথা দিয়েছিলেন, দেখো! স্বর্ণপদক এনে দেবো। সাবারি তার  প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছেন। নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে ১৫ মাইলের নিউইয়র্কের হাফ ম্যারাথনে গোল্ড মেডাল জিতেছেন তিনি।আর একদিন পরেই বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যারাথন নিউইয়র্ক সিটির ২৬ দশমিক ২ মাইলের  ম্যারাথনে প্রথম একশ জনের মধ্যে একজন হয়েছেন- বাংলাদেশি মেয়ে সাবারি হক। নিউইয়র্ক সিটি ম্যারাথনে সাবারিই প্রথম বাংলাদেশি মেয়ে।উল্লেখ্য, রোববার ৪২ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রা আর ৪০ মাইল বেগে দমকা হাওয়া আর হালকা বৃষ্টির প্রচণ্ড বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেই ম্যারাথন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছে প্রতিযোগীদের। বাংলাদেশের মেয়ে সাবারি এর আগে  তিনবার এই নিউইয়র্ক ম্যারাথনে অংশ নিয়েছেন। এবার নিয়ে চতুর্থবারের মতো সাবারি নিউইয়র্ক সিটি ম্যারাথনে অংশ নেন। এর আগে শিকাগো ম্যারাথনেও একবার অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

এরপর আটবছর ধরে ম্যারাথনে অংশ নিতে সাবারি প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে বাংলানিউজকে জানিয়েছেন, সাবারির গর্বিত পিতা প্রফেসর এতেশামুল হক। রোববার ২ নভেম্বর নিউইয়র্ক সিটির ম্যারাথনে প্রথম একশ জনের মধ্যে স্থান করে নিয়ে সাবারি বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। ঠিক তার আগের দিন শনিবার ১৫ মাইলের নিউইয়র্কের হাফ ম্যারাথনে ‘গোল্ড মেডেল পাওয়ার  কৃতিত্ব অর্জন করেন  সাবারি। সাবারি তার নিজের ইচ্ছা এবং বাবা-মায়ের প্রেরণাতেই আজকের এস্থানে নিজেকে এনেছেন বলে জানিয়েছেন।

তবে এখানেই শেষ নয়, বাবা এহতেশামুল হক আরো জানিয়েছেন, লেখাপড়ায় অত্যন্ত মেধাবী সাবারি হক হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ইন্টারন্যাশনাল ল’ বিষয়ে মাস্টার্স করার সুযোগ পেয়েছেন। এর আগে তিনি স্কলারশিপ পেয়ে দুটি বিষয়ে কৃতিত্বের সঙ্গে অনার্স শেষ করেন। আর অনার্স শেষ করেই এত তরুণ বয়সেই খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি সরকারি উচ্চ পদে দায়িত্ব পালন করছেন সাবারি।

সাবারির বাবা সবার কাছে মেয়ের জন্য দোয়া কামনা করে বলেছেন, মেয়ে যেন বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করতে পারে তার সাফল্য দিয়ে। তিনি বললেন, আমি মেয়ের জন্য গর্বিত। নিউইয়র্ক সিটি ম্যারাথনে মোট ৫০ হাজার অংশগ্রহণকারীর মধ্যে পুরুষ ও নারী সম্মিলিত প্রতিযোগিতায় এবারে যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন উইলসন কিপস্যাং ও মেরি কাইতানি। এই দুই দৌড়বিদ কেনিয়ার সন্তান। কেবলমাত্র নারী প্রতিযোগীদের মধ্যেও এবার প্রথম স্থানে রয়েছেন যুগ্মভাবে দুজন। আর এদুজনের একজন হলেন-  মেরি কাইতান।  তার সঙ্গে যুগ্মভাবে প্রথম হয়েছেন জেমিমা সামগঙ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close