স্থানীয়

আশুগঞ্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রে অগ্নিকাণ্ড: দশ ঘণ্টা পর চালু

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের একটি সাব স্টেশনের ট্রান্সফরমারে অগ্নিকাণ্ডের কারণে দশ ঘন্টা বন্ধ থাকার পর ১২০ মেগাওয়াট ক্ষমতার দুটি ইউনিটে আবার উৎপাদন শুরু হয়েছে। সারা দেশে বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ১২ দিনের মাথায় মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে আশুগঞ্জে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পরিচালক (কারিগরি) প্রকৌশলী সাজ্জাদুর রহমান জানান,  ১২৮ কেভি সাব স্টেশনের সুইচ ইয়ার্ডের সেন্ট্রাল ট্রান্সফরমার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে যায়। খবর পেয়ে আশুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

অগ্নিকাণ্ডের ফলে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৬৪ মেগাওয়াট ক্ষমতার ২ নম্বর ইউনিট, ৫৬ মেগাওয়াট ক্ষমতার জিটি-২ ইউনিট, ১৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতার ৩ নম্বর ইউনিট ও ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতার গ্যাস ইঞ্জিন ইউনিটের উৎপাদন তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ হয়ে যায়।

এর মধ্যে ৩ নম্বর ও গ্যাস ইঞ্জিন ইউনিটে বুধবার সকাল ৭টার দিকে আবার উৎপাদন শুরু হলেও ১২০ মেগাওয়াট ক্ষমতার বাকি দুটি ইউনিট চালু হতে বেলা দেড়টা বেজে যায়। বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের কোনো কারণ প্রকৌশলী সাজ্জাদুর রহমান জানাতে পারেননি।

আশুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম জানান, সুইচ বোর্ডে ইয়ার্ডের সেন্ট্রাল ট্রান্সফরমার বিস্ফোরিত হওয়ায় তেল নিঃসৃত হলে আগুনের মাত্রা বেড়ে যায়। গত ১ নভেম্বর জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয় ঘটলে সারাদেশ আট ঘণ্টা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন থাকে। জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ না থাকায় ওইদিন আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নয়টি ইউনিটেই উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়।

ওই ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি বলেছে, জাতীয় গ্রিডের কোনো অংশের ত্রুটির কারণে সেদিন বিপর্যয় ঘটে। তবে সমস্যা ঠিক কোথায় তা এখনও জানা যায়নি।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close