যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

ইয়েমেন সংকট নিরসনে ‘নিষেধাজ্ঞা’র পথে জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ইয়েমেনে চলমান সংকট নিরসন ও হুথি বিদ্রোহীদের কবল থেকে দেশটির জনগণকে রক্ষায় নিষেধাজ্ঞা’র পথে হাঁটতে চলেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) নিষেধাজ্ঞার খসড়া উপস্থাপণ করা হয়েছে বলে কূটনীতিকদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম।

জানা গেছে, ইয়েমেনে সংকট নিরসনে এই নিষেধাজ্ঞায় তাৎক্ষণিক ও শর্তহীনভাবে সকল ধরণের সহিংসতা বন্ধ করতে বলা হয়েছে শিয়াপন্থি হুথি বিদ্রোহীদের। সেই সঙ্গে রাজধানী সানাসহ ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরের থেকে ইয়েমেনের যেসকল এলাকা তারা দখল করেছে, সেসব এলাকা থেকেও সরে যেতে বলা হয়েছে।

যদি নিষেধাজ্ঞার শর্তপূরন না হয়, তাহলে নিরাপত্তা পরিষদ সাবেক ইয়েমেনী প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহের ছেলে আহমেদ সালেহ ও হুথি শীর্ষ নেতা আব্দুলমালিক আল-হুথির যাবতীয় বৈশ্বিক সম্পদ বাজেয়াপ্ত করাসহ তাদের দেশের বাইরে যেকোনো স্থানে ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে। আহমেদ সালেহ ইয়েমেনের এলিট ফোর্স রিপাবলিকান গার্ডের সাবেক প্রধান।

নিষেধাজ্ঞা বিলের বিস্তারিততে বলা হয়েছে, ইয়েমেন সেনাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া সকল অস্ত্র ও মিসাইল ফিরিয়ে দিতে হবে হুথি বিদ্রোহীদের। সেই সঙ্গে হামলা বন্ধসহ দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও আটক সকল রাজনৈতিক নেতাকেও মুক্তি দিতে হবে।

তবে নিষেধাজ্ঞা আরোপে এখনো কিছু পদক্ষেপ বাকি রয়েছে। খসড়া উপস্থাপণের পর বিলটির ওপর ভোটাভুটি হবে নিরাপত্তা পরিষদে। এরপর প্রয়োজন হলে আরো পরিমার্জন ও পরিবর্তন করে চূড়ান্ত বিলটি উপস্থাপণের পরই এটি কার্যকর হবে বলে জানা গেছে।

এর আগে গত বছর নভেম্বরে সাবেক প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহ, দুই ঊর্ধ্বতন হুথি নেতা আব্দ আল-খালিক আল-হুথি ও আব্দুল্লাহ ইয়াহইয়া আল হাকিমকে কালো তালিকাভূক্ত করে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close