আরববিশ্ব জুড়ে

জঙ্গি জন্ম দিতে বোকো হারামের ব্যাপক গণধর্ষণ

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ডাক্তারের ছেলে ডাক্তার হয়, উকিলের ছেলে উকিল আর জঙ্গির ছেলে জঙ্গি! এমন বদ্ধমূল ধারণা থেকেই নাইজেরিয়ায় গণহারে মেয়েদের ধর্ষণ করে চলেছে বোকো হারাম জঙ্গিরা। উদ্দেশ্য বোকো হারামের পরবর্তী প্রজন্ম তৈরি করা, যারা চলতে-ফিরতে শিখলেই হাতে অস্ত্র তুলে নেবে। জন্মেই জঙ্গি!

বোকো হারামের হাত থেকে নিস্তার পাওয়া কয়েক’শো কিশোরী-যুবতী এমনটাই জানিয়েছেন। তাঁদের অনেকেই অন্তঃসত্ত্বা। এক একজনকে ঘরে আটকে রেখে কয়েক জন মিলে ধর্ষণ করেছে। ওই বোকো হারাম জঙ্গিরা আবার তাঁদের বিয়েও করেছে, তাদের মতো করে। এমনটাই জানালেন হামসাতু নামে বছর পঁচিশের এক যুবতী। এখন চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা হামসাতু। এই যুবতী জানান, বোকো হারামের এক জঙ্গিই তাঁর আনাগত সন্তানের বাবা।

হামসাতু জানান, অন্য জঙ্গিদের সঙ্গেও শারীরিক সম্পর্কে তাঁকে বাধ্য করা হত। তাঁর মতোই অবস্থা অন্য মেয়েদেরও। কারও চেঁচানোর উপায় নেই। চিৎকার করলেই জঙ্গিরা প্রাণে মেরে ফেলবে।

উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়ার এক বড় অংশে নিজেদের আধিপত্য কায়েম রেখেছে কট্টর ইসলামি এই জঙ্গিরা। এই জঙ্গিদের এখন লক্ষ্যই হল শহর ও গ্রামের মেয়েরা। মেয়েদের তুলে নিয়ে গিয়ে ওরা গণহারে ধর্ষণ করছে। এর পর তাদের মধ্য থেকে কাউকে কাউকে বিয়েও করছে ওই জঙ্গিরা।

এমনই কয়েক জনকে জঙ্গিদের খপ্পর থেকে উদ্ধার করেছে নাইজেরীয় সেনা। উদ্ধার হওয়া কিশোরী-যুবতীদের অনেকেই এখন অন্তঃসত্ত্বা। এখনও পর্যন্ত এমন ২০০ অন্তঃসত্ত্বার খোঁজ মিলেছে। তবে, এই সংখ্যাটা আরও অনেক বেশি বলেই ধারণা সরকারের।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close