শরীর স্বাস্থ্য

অতিরিক্ত ব্যায়াম ক্ষতিকর: কখন থামতে হবে বুঝুন

শরীর স্বাস্থ্য ডেস্ক: হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হয়েও বেঁচে গিয়েছিলেন তারা। এমন ২ হাজার ৪০০ জনের ওপর গবেষণা চালানো হলো। প্রাথমিকভাবে গবেষকরা দেখলেন, যারা যতো বেশি ব্যায়াম করেছেন, তাদের ক্ষেত্রে হার্টের মারাত্মক অসুখে আক্রান্ত হয়েও মৃত্যুর ঝুঁকি ততোটাই কম।

কিন্তু অবশ্যই সেখানে একটা সীমারেখা রয়েছে। অনেকেই মনে করে থাকেন, ব্যায়াম বেশি করলে ক্ষতিটা কোথায়! এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, সবকিছুর মধ্যেই পরিমিতি বোধটা থাকা খুব জরুরি।

ওই গবেষণার গবেষকরা জানালেন, প্রতি সপ্তাহে যারা ৩০ মাইলের বেশি দৌড়াতেন, তাদের ক্ষেত্রে শরীরচর্চার সুফল বা উপকারের মাত্রাটা কমতে লাগলো। অন্যদিকে, যারা সপ্তাহে ৪৬ মাইল অর্থাৎ দিনে সাড়ে ৬ মাইলের বেশি হাঁটতেন, তারাও ব্যায়ামের উপকার থেকে বঞ্চিত হলেন। মায়ো ক্লিনিক প্রসিডিংস’ সাময়িকীতে গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

গবেষণা এখানেই শেষ নয়। দেখা গেলো, যারা সপ্তাহে অতিরিক্ত ব্যায়াম করছেন, তাদের ক্ষেত্রে হার্টের অসুখে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকির মাত্রা বেড়ে যাচ্ছে। গবেষণাটির নেতৃত্ব দেন লরেন্স বার্কলি ন্যাশনাল ল্যাবরেটরির পল উইলিয়ামস ও হার্টফোর্ড হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের পল থম্পসন। অতিরিক্ত ব্যায়াম নয়। বয়স, উচ্চতা, শারীরিক গঠনভেদে ব্যায়ামের মাত্রাটা নির্ধারণ করে নেয়া উচিত। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতি সপ্তাহে আড়াই ঘণ্টা মাঝারি ধরনের ব্যায়াম করা যেতে পারে।

আর ভারি ব্যায়ামের ক্ষেত্রে সপ্তাহে অবশ্যই ৭৫ মিনিটের বেশি নয়। তবে বয়সের তারতম্য ও শারীরিক গঠনভেদে ব্যায়ামের তারতম্য হতে পারে। হার্টের অসুখে যারা ভুগছেন, তাদের অবশ্যই ব্যায়ামটা নিয়মের মধ্যে নিয়ে আসতে হবে। যে কোন বয়সেই প্রতিদিন ব্যায়াম নয়। সপ্তাহে ৪-৫ দিন ব্যায়াম এবং বাকি দিনগুলো পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে। এতে ব্যায়ামের উপকারটাও পাওয়া যাবে।

সাধারণভাবে, অধিকাংশ হার্টের রোগীদের বেশির ভাগ দিন ৩০-৪০ মিনিট ব্যায়াম করা উচিত। এর বেশি ব্যায়ামের তেমন যৌক্তিকতাও খুঁজে পাননি গবেষকরা। তারা বলছেন, ব্যায়াম ৬০ মিনিট বা ১ ঘণ্টার বেশি করাটা অনুচিত।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close