অন্য পত্রিকা থেকে

সুন্দর করতে কাটা হচ্ছে টিলা

নিউজ ডেস্ক: সিলেটের গোলাপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের ভবন নির্মাণের জন্য প্রায় দুই বছর আগে একটি টিলার বেশির ভাগ কাটা হয়। প্রায় দুই বছর পর সেই টিলার অবশিষ্টাংশ কাটা হচ্ছে। গোলাপগঞ্জ ইউপির চেয়ারম্যানের নির্দেশে টিলা কাটা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত রোববার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, এবার যন্ত্রের (এক্সকাভেটর) সাহায্যে টিলাটি কাটা হচ্ছে। ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান বলেন, টিলাটি ‘সুন্দর’ করতে যন্ত্র দিয়ে একটু কাটা হচ্ছে।

সিলেট-জকিগঞ্জ মহাসড়কের পাশে গোলাপগঞ্জ উপজেলার রানাপিংবাজারের পাশের এই টিলার নাম ‘পাখি টিলা’। প্রায় চার শতক জায়গাজুড়ে ২০ থেকে ২৫ ফুট উচ্চতার টিলা ছিল এটি। এর পাশে গোলাপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণ শুরুর সময় টিলাটি কাটা শুরু হয়। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) মাধ্যমে ৫২ শতক জায়গায় ৯১ লাখ ৬৮ হাজার টাকা ব্যয়ে ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হয়।

প্রকল্পসংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, কমপ্লেক্সের ভবনের ভিত্তি ও দেয়াল নির্মাণ সম্পন্ন হলে জমি উঁচু করার প্রয়োজন হয়। তখন পাখি টিলা কেটে ফেলার ব্যবস্থা করেন ইউপি চেয়ারম্যান।

জমি উঁচু করতে ২০১৩ সালের জুন মাস থেকে টিলা কাটা শুরু হয়। ওই বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যে টিলার অধিকাংশ কেটে ফেলা হয়। এ নিয়ে ওই বছরের ৩ অক্টোবর প্রথম আলোয় একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সে সময় ইউপি চেয়ারম্যান ও গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক লুৎফুর রহমান কোনো অনুমতি না নিয়েই টিলা কাটার নির্দেশ দেন। ৫ অক্টোবর পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা টিলাটি পরিদর্শন করেন। এরপর টিলা কাটা বন্ধ ছিল।

এক সপ্তাহ আগে আবার টিলাটি কাটা শুরু হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে যন্ত্র দিয়ে টিলা কাটার কাজ তদারকিতে নিয়োজিত কয়েকজন বলেন, ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশেই তাঁরা এ কাজ করছেন। টিলার অবশিষ্টাংশ কেটে কী করা হবে—এমন প্রশ্নের জবাবে একজন বলেন, এখানে চেয়ারম্যান সাহেব পর্যটকদের বসার ব্যবস্থা করবেন।

ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান মুঠোফোনে বলেন, টিলা কাটা হচ্ছে না। টিলাটি ক্ষতবিক্ষত ছিল। এটি সুন্দর করা হচ্ছে। সুন্দর করে আমি এটি সংরক্ষণ করতে চাই। এ বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের কোনো অনুমতি আছে কি না—এমন প্রশ্ন করলে ইউপি চেয়ারম্যান কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নতুন করে টিলাটি কাটা হলে সরেজমিনে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close