অন্য পত্রিকা থেকে

যুক্তরাজ্য বিএনপিতে শৃঙ্খলা বোধ কবে আসবে? (ভিডিও)

নিউজ ডেস্ক: বৃহস্পতিবার চরম বিশৃঙ্খলা আর হট্টগোলের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার লন্ডনে নেতাকর্মীদের নিয়ে ঈদ উদযাপন অনুষ্ঠান। এটি ছিল বেগম জিয়ার ব্রিটেন প্রবাসীদের সাথে প্রথম ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠান। অপরিকল্পিতভাবে অনুষ্ঠান আয়োজন, ছোট একটি হলে প্রায় তিনগুনের অতিথির আগমন প্রথম থেকেই বিশৃঙ্খলার শেষ ছিল না। অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র কের বেশ কয়েকদিন যাবত ছিল ব্যাপক গোপনীয়তা।

সর্বশেষ বুধবার বিকেলে জানানো হয় অনুষ্ঠান স্থলের নাম ও ঠিকানা। অনুষ্ঠান বিকাল সাড়ে ৫টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শুরু হয় ৭টায়। ঈদের দিন ব্রিটেন প্রবাসীরা সাধারণত পরিবারকে সময় দিলেও এবার বিএনপির নেতাকর্মীরা ব্রিটেনের বিভিন্ন শহর থেকে দল বেঁধে লন্ডনে আসেন। এত লোক সমাগম ঘটতে পারে তার কোন আগাম প্রস্তুতি ছিলনা যুক্তরাজ্য বিএনপির।

অনুষ্ঠানে অনেকে স্ব-পরিবারে এসে বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হয়েছে। ব্রিটেনের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক ও সুশিল সমাজের প্রতিনিধিদের সামনে বিএনপি নেতাকর্মীদের চরম দায়িত্বহীনতা সাবেক তিন বারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সামনে সমস্থ কমিউনিটিকে হেয় করা হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকে। অনুষ্ঠানে বিএনপি নেতাকর্মীদের চরম অশৃঙ্খল মনোভাব ছিল চোখে পড়ার মত। বার বার সিনিয়র নেতারা অনুরোধ করার পরও কে শুনে কার কথা।

মোবাইলে ছবি তোলা, ভিডিও চিত্র ধারণ, এমনকি সেলফি তুলে লাইভ অনুষ্ঠান সম্প্রচারের মত ধারা বিবরনী দিয়ে অতি উৎসাহি নেতাকর্মীরা প্রথম থেকেই হৈ চৈ ও বিশৃঙ্খলার মধ্যে রেখেছিল। নেতাকর্মীদের ভীড়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের কর্মীদেরও ছবি তুলা এবং ক্যামেরা করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। ধস্তা ধস্তিতে পায়ে আগাত পেয়েছেন লন্ডন বিডিনিউজ ২৪ ডটকমের ফটোগ্রাফার আবুল কালাম।

[youtube id=”Xgww3eWkf4A” width=”600″ height=”350″]

পূর্ব লন্ডনের ফেয়ারলোপ ওয়াটার কান্ট্রি পার্কে এই অনুষ্ঠানে বেগম জিয়ার বক্তব্যের বেশিরভাগ অংশই নেকাতর্মীদের হৈ চৈ আর বিশৃঙ্খলায় অনেকে শুনতে পারেননি। অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত বিএনপিনেত্রীর হাতে ফুলের তোড়া তুলে দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য দীর্ঘসময় লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় অতিথিদের। নেতাকর্মীরা মঞ্চের সামনে জড়ো হয়ে মোবাইল ফোন ও ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলতে থাকলে মঞ্চে উঠতে অতিথিদের বেগ পেতে হয়। এ সময় নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে অতিথিদের ধাক্কাধাক্কিও হয়।

বেশ কয়েক বার যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক ও সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমদ নেতাকর্মীদের শান্ত থাকার অনুরোধ করলেও তারা ব্যর্থহন। এমনকি স্বয়ং তারেক রহমান বার বার চেয়ার থেকে উঠে শান্ত হওয়ার আহবান জানালেও কোনভাবেই শান্ত রাখায় যায়নি স্ট্রেইজের সামনে থাকা নেতাকর্মীদের।

এসময় অনুষ্ঠানে আসা অনেকে বলেন, যুক্তরাজ্য বিএনপি দিনে দিনে অশৃঙ্খল হয়ে যাচ্ছে। কখন আসবে তাদের মধ্যে দায়িত্ববোধ, শৃঙ্খলাবোধ। এধরনের ঘটনা শুধু এবারই নয়। প্রায় প্রতিটি অনুষ্ঠানে হৈ চৈ বিশৃঙ্খলা হয়ে থাকে।

উপস্থিত অনেকেই বলেছেন একটি সভ্য দেশে বসবাস করে প্রতিনিয়ত দেশের সম্মানিত ব্যক্তিদের সামনে বিশৃঙ্খলা প্রবাসীদের ভাবমূর্তিকে প্রশ্নে সম্মুখিন করে তুলবে। যুক্তরাজ্য বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনকে দলীয় ফোরামে এ বিষয় নিয়ে আলোচনার আহবান জানিয়েছেন কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close