লন্ডন থেকে

দক্ষিন লন্ডনের আহমদিয়া মসজিদে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দুই কিশোর আটক

দক্ষিন লন্ডনের মর্ডেন এলাকার লন্ডন রোড়ে অবস্থিত বাইতুল ফুতুহু মসজিদকে পশ্চিম ইউরোপের সবচেয়ে বড় মসজিদ হিসেবে গণ্য করা হয। আহমদীয় সম্প্রদায়ের এই মসজিদটি ৫ দশমিক ২ একর জায়গা নিয়ে প্রতিষ্ঠিত এবং এক সাথে সাড়ে ১০ হাজার মানুষ নামাজ পড়তে পারে। দক্ষিন লন্ডনের আহমদিয়া মসজিদের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সন্দেহে ২ জনকে গ্রেফকতার করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের বয়স ১৬ ও ১৪ বছর। ইউরোপের সর্ববৃহৎ এ মসজিদে শনিবার অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে মসজিদের নিচ তলার অর্ধেক এবং দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলার কিছু অংশের ক্ষতি হয়েছে। অগ্নি কান্ডের সময় মসজিদে লোক সমাগম কম থাকায় প্রাণহানীর ঘটনা ঘটেনি বলে ফায়ার সার্ভিস। প্রায় ৭০ জন ফায়ার সার্ভিস অফিসার অক্লান্ত পরিশ্রম করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

অগ্নিকান্ডের পর আহমেদিয়া সম্প্রদায়ের শীর্ষ নেতা লর্ড আহমদে টুইট বার্তায় বলেন, মসজিদটি একটি সুন্দর কমপ্লেস্কের মধ্যে ছিল, সেখান থেকে শান্তির বার্তা আসত, মানুষ নামাজ পড়ত।

মার্টন কাউন্সিল লিডার স্টিফেন আলমব্রিটস বলেন, মসজিদটি একটি সুন্দর বিল্ডিং এবং এলাকার প্রধান ল্যান্ডমার্ক এর মধ্যে অবস্থিত। তিনি বলেন, মসজিদে নিরাপত্তা কর্মী দ্বারা পরিচালিত হয়ে থাকে। সম্ভবত রান্না ঘর থেকে আগুন সূত্রপাত হতে পারে।

লন্ডন ফায়ার সার্ভিস বলেছে, এটি একটি লিস্টেট বিল্ডিং, যাতে মসজিদ কার্যক্রম চলছিল। মসজিদের সম্পূর্ণ আগুন বিকেল সাড়ে ৫টায় নিয়ন্ত্রনে আনা হয়। এতে একজন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ধোঁয়া জনিত রোগের কারনে।

স্টেশন ম্যানেজার ফিলিপ মর্টন বলেন, এটি একটি বৃহৎ অগ্নিকান্ডের ঘটনা, আমাদের কর্মীরা মসজিদের অন্য অংশকে আগুন থেকে রক্ষায় কঠোর পরিশ্রম করেছেন। তারা কমিউনিটির মানুষকে সাথে নিয়ে মসজিদের পবিত্রতা রক্ষা করে অত্যন্ত ঘনিষ্টভাবে কাজ করেছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close