রাজনীতি

দেশে ফিরতে বিলম্ব হতে পারে খালেদা জিয়ার

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতা খালেদা জিয়ার দেশে ফেরায় বিলম্ব হতে পারে। অক্টোবরের প্রথম দিন তার দেশে ফেরার কথা থাকলেও চিকিৎসা জটিলতার কারণে বিলম্ব হতে পারে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে খালেদা জিয়ার চোখের চিকিৎসা শেষ হয়নি। চিকিৎসা প্রক্রিয়া শেষ করতে আরও সময় লাগবে। চিকিৎসকদের অভিমত পাওয়ার পর তার ও সফরসঙ্গীদের ফিরতি বিমান টিকিট বাতিল করা হয়েছে। তবে নতুন দিনক্ষণ এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, সবকিছু ঠিক থাকলে অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে দেশে ফিরবেন খালেদা জিয়া। প্রয়োজনে তার ফেরা আরও বিলম্ব হতে পারে। প্রাপ্ত সূত্র মতে, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসকরা বলেছেন, তার দুইটি চোখেরই অপারেশন করাতে হবে। সেটা একসঙ্গে নয়, দুই দফায় সম্পন্ন করতে হবে। এ নিয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে সার্বিক যোগাযোগ করছেন খালেদা জিয়ার পুত্রবধূ ডা. জোবায়দা রহমান।

উল্লেখ্য, উন্নত চিকিৎসার জন্য ১৫ই সেপ্টেম্বর রাতে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে যুক্তরাজ্যে যান বিএনপি চেয়ারপারসন। পরদিন সকাল পৌনে ৭টায় লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানান বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতাকর্মীরা। বিমানবন্দর থেকে নিজেই গাড়ি চালিয়ে মাকে নিয়ে যান তারেক রহমান।

এদিকে খালেদা জিয়া লন্ডনে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আট বছর পর এবং প্রথমবারের মতো বিদেশে ঈদ পালন করেন। সেখানে বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী, সমর্থকদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তিনি। ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ছাড়াও তিনি দীর্ঘ বক্তৃতা করেন।

ওদিকে বেঁধে দেয়া সময় পার হলেও দলের পুর্নগঠনে সাড়া মেলেনি। বিএনপি চেয়ারপারসন দেশে ফিরে দলের চলমান পুর্নগঠন প্রক্রিয়ার চূড়ান্ত উদ্যোগ নেবেন এবং যোগ্যদের মূল্যায়নসহ ভবিষ্যৎ দিক নির্দেশনা দেবেন। এমন অপেক্ষার প্রহর গুনছেন দলটির নেতাকর্মীরা।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close