যুক্তরাজ্য জুড়ে

রাশিয়া পরমাণু বোমা ফেলার ছক করেছিল লন্ডনে

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: হিরোশিমা-নাগাসাকিতে হত্যালীলা নতুন করে মনে করিয়ে দেওয়ার কিছু নেই। মানব সভ্যতার ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ নৃশংসতা। একটা সময় হিরোশিমা-নাগাসাকির মতোই আরও একটি পরমাণু বোমার ধ্বংসলীলা দেখত বিশ্ব। সেই হামলার লক্ষ্য ছিল লন্ডন। হ্যাঁ, ১৯৫৪ সালে লন্ডনে পরমাণু বোমা ফেলার পরিকল্পনা করেছিল রাশিয়া।

লন্ডনে কখন, কোথায় পরমাণু বোমা ফেলা হবে, তাও ছকে ফেলা হয়ে গিয়েছিল। শেষ মুহূর্তে ভেস্তে যায় রাশিয়ার পরিকল্পনা। রাশিয়া সরকারের একটি অত্যন্ত গোপন চিঠি ফাঁস হতেই তোলপাড় শুরু হয়েছে বিশ্বে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ তখন সবে শেষ হয়েছে। ১০ বছরও কাটেনি। ঠান্ডা যুদ্ধ চলছে। সেই সময়ের রাশিয়া সরকারের একটি অতিগোপন চিঠি সম্প্রতি ফাঁস করেছে ব্রিটেনের ন্যাশনাল আর্কাইভস। চিঠিটি উইলিয়াম পেনির হাতে লেখা।

উইলিয়াম পেনি ছিলেন পরমাণু বোমা বিশেষজ্ঞ। ১৯৫৪ সালে লেখা চিঠিটিতে পেনি অ্যাটমিক এনার্জি অথরিটি-র চেয়ারম্যান এডুইন প্লওডেন-কে জানাচ্ছেন, বোমাগুলি ফেলা হতে পারে দক্ষিণ লন্ডনের ক্রয়ডন, পশ্চিম লন্ডনের উক্সব্রিজ ও পূর্ব লন্ডনের রমফোর্ড-এ।

ব্রিটিশ সংবাদপত্র ডেইলি মিরর-এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ৩২টি পরমাণু বোমার মধ্যে ৪ থেকে ৫টি শক্তিশালী বোমা লন্ডনে ফেলার পরিকল্পনা করেছিল রাশিয়া। প্রসঙ্গত, ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান ছিলেন জোসেফ স্তালিন। ১৯৫৪ সালে দায়িত্ব নেন নিকিতা ক্রুসচেভ।

হিরোশিমা ও নাগাসাকিতে পরমাণু বোমা ফেলার পরিকল্পনাটি ছিল তত্কালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট হ্যারি ট্রুম্যানের। দু টি পরমাণু বোমাতেই প্রায় দেড় লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close