অন্য পত্রিকা থেকে

দিরাই পৌর নির্বাচন: বিএনপির একক প্রার্থী, বেকায়দায় আওয়ামীলীগ

জুবের সরদার দিগন্ত: মন্ত্রীপরিষদের বৈঠকে দলীয় ভাবে পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সিদ্ধান্তের পর থেকে বেকায়দায় পরেছেন আসন্ন পৌর নির্বাচনের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীরা। তফসিল ঘোষণা না হলেও পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী খোঁজে ব্যাস্থ দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগ ও বিএনপির নেতা কর্মীরা। এক্ষেত্রে বিএনপির একক প্রার্থী থাকলেও একাধিক প্রার্থী নিয়ে বেকায়দায় রয়েছে আওয়ামীলীগ।

দিরাই নির্বাচনী এলাকায় রাজনৈতিক কোন প্রভাব না থাকলেও, এখানে ভোট যোদ্ধ হয় ভাটি বাংলার দুই সিংহ পুরুষ বাবু সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত এবং নাছির উদ্দিন চৌধুরীর সমর্থিত প্রার্থীদের নিয়ে। এদিকে পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে সুরঞ্জিত-নাছির সমর্থকরা এখনই ভোটের অংক কষা শুরু করেছেন।

এবার নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর চিহ্ন হবে নৌকা আর বিএনপি প্রার্থীর চিহ্ন হবে ধানের শীষ। ভোটাররা মনে করেন আওয়ামী লীগ বিএনপি যাই বলেন না কেন, এলাকার মানুষের সাথে যার ভালো সম্পর্ক রয়েছে যার সেই নির্বাচনে জয়লাভ করবে।

দিরাই পৌর নির্বাচনকে সামেন রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নাম এখন ভোটারদের মুখে মুখে শুনা যাচ্ছে। আওয়ামীলীগ থেকে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে, বর্তমান মেয়র, দিরাই পৌর আয়োমীলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান বুলবুলের নাম রয়েছে সবার আগে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোশারফ মিয়া, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা দিরাই ডিগ্রী কলেজের সাবেক ভিপি, পৌর কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র, ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র বিশ্বজিত রায় বিশ্বসহ একাধিক প্রার্থীর নাম আলোচনায় রয়েছে।

অপর দিকে বিএনপি থেকে একক প্রার্থী হিসেবে দিরাই উপজেলা যুবদলের সভাপতি, গত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধী মেয়র প্রার্থী মঈন উদ্দিন চৌধুরী মাসুক এর নাম একক ভাবে শুনা যাচ্ছে। দিরাই পৌর সভার বর্তমান মেয়র গত পাঁচ বছরে ব্যক্তিগত ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে অধিকাংশ সময় লন্ডনে অবস্থান করায় ভারপ্রাপ্ত মেয়র দিয়ে চলছে দিরাই পৌর সভার কাজ। বর্তমানে তিনি লন্ডনে থাকলেও আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে তার নাম শুনা যাচ্ছে।

দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোশারফ মিয়া আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকে শুধু পৌরসভা নয় উপজেলা বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা মানুষের সমস্যা সমাধানে আপ্রাণ চেষ্টা করেন। মোশারফ মিয়া সাধারণ মানুষের পরীক্ষিত বন্ধু। তাই সাধারণ মানুষ মনে করে এ ধরনের প্রার্থী নির্বাচিত হলে গরীব দুঃখী মেহনতী মানুষের উপকার হবে। দিরাই পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র বিশ্বজিৎ রায়কে নিয়ে তরুণ সমাজের মধ্যে রয়েছে অনেকটা আগ্রহ।

বর্তমান মেয়র বছরের অধিকাংশ সময় লন্ডনে থাকায় ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করায় পৌর এলকার সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের সথে তার নিভির সম্পর্ক গড়ে উঠছে। পৌরবাসী আগামী নির্বাচনে বিশ্বজিৎ রায়কে ভারমুক্ত করে মেয়র হিসিবে দেখতে চান বলে তরুন সমাজের মুখে মুখে রয়েছে তার নাম।

তাছাড়া তিনি ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দ্বয়ীত্ব পালন করে এলাকার ভোটারদের কাছে হয়ে উঠেছেন নির্ভরযোগ্য ও জনপ্রিয়। বিশ্বজিৎ রায় বিশ্ব আওয়ামীলীগ ছাড়াও অন্যান্য দলের ভোটারদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখেন বলে লোকমুখে শুনা যাচ্ছে।

এছাড়াও গত পৌর নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী মঈন উদ্দিন চৌধুরী মাসুক, নির্বাচিত না হয়েও পাঁচ বছর যাবত পৌর বাসীর সকল নাগরিক আন্দোলনে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন। পৌর বাসীর যে কোন সমস্যা সমাধানে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। সে হিসেকে আগামী নির্বাচনে তিনিই হবেন বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী। মঈন উদ্দিন চৌধুরী মাসুক আসন্য পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী হবেন বলে এলাকার সাধারণ ভোটরসহ দলের নেতাকর্মীরা আশাবাদী।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close