স্বদেশ জুড়ে

বগুড়ার শিয়া মসজিদে হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: বগুড়ায় শিয়া মুসলিমদের একটি মসজিদে বন্দুকধারীদের হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এসব বলা হয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, আইএস-এর সঙ্গে স¤পর্কিত একটি টুইটার অ্যাকাউন্টে দায় স্বীকার করে বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে।

সেখানে বৃহস্পতিবারের হামলার দায় স্বীকার করে বলা হয়েছে, খেলাফতের যোদ্ধারা প্রার্থনারতদের মেশিনগান দিয়ে হামলা চালিয়েছে। সাইট ইন্টিলিজেন্সের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই বিবৃতিতে আইএস শিয়া মুসলিমদের দিকে ইঙ্গিত করে বলেছে, আল্লাহর অনুমতি নিয়ে, বাংলাদেশের রাফিধা ইরানিয়ান স্বার্থের ওপর অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ওই হামলায় নিহত হয়েছে এক ব্যক্তি, আহত হয়েছে তিন জন। গত মাসেও শিয়া সম্প্রদায়ের একটি মিছিলে বোমা হামলা চালানো হয়। বৃহ¯পতিবারের হামলায় শিয়া মসজিদের মুয়াজ্জিন মোয়াজ্জেম হোসেন মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে পরে হাসপাতালে মারা যান। মসজিদের ৩৫ বছর বয়সী ইমাম সহ আরও তিনজনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান বগুড়ার শিবগঞ্জ পুলিশের কর্মকর্তা আহসান হাবিব।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের ১৬ কোটি জনসংখ্যায় শিয়া জনগোষ্ঠী খুব ছোট একটি সংখ্যালঘু গোষ্ঠী। এর আগে বাংলাদেশে কখনই সাম্প্রদায়িক সহিংসতা হয়নি। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক শামিম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, এ ধরণের হামলার প্রকৃতি ও সময় খুব উদ্বেগজনক।

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশের ইতিহাসে কোন মসজিদে এ ধরণের হামলা দেখিনি। নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ হামলাটি আরও একটি ইঙ্গিত যে আন্তর্জাতিক জঙ্গিবাদী সংগঠনগুলো বাংলাদেশের চরমপন্থী নেটওয়ার্কসমূহের সঙ্গে স¤পর্ক গড়ে তুলছে।

পুলিশ কর্মকর্তা আহসান হাবিব বলেন, আমি এ ধরণের তথ্য শুনিনি বা পাইনি যে, শিয়া সম্প্রদায়ের সঙ্গে কারও দ্বন্দ্ব বা শত্রুতা ছিল। এ হামলাটি আমাকে কেবল বিস্মিত করেছে।

ওই অঞ্চলের শিয়া নেতা মোজাফফর হোসেন (৩৫) যিনি বাংলাদেশ ইমামিয়া ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনে’র মহাসচিব, বলেন, বন্দুকধারীরা নিজেদের সঙ্গে তালা নিয়ে এসেছিল। এ তালা দিয়ে তারা মসজিদ প্রাঙ্গনের গেইট আটকে দেয়। এরপরই তারা মসজিদে প্রবেশ করে গুলি ছুড়তে থাকে। তিনি বলেন, বুধবারও তিনি নিজে ওই মসজিদে নামাজ আদায় করেছিলেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আইএস-এর সঙ্গে স¤পর্কিত বিভিন্ন অ্যাকাউন্টে সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া বহু হামলার দায় স্বীকার করা হয়েছে। এসব হামলার মধ্যে শিয়া মিছিলে হামলা ছাড়াও, বাংলাদেশে বসবাসরত দুই বিদেশীকে গুলি করে হত্যা, পুলিশ চেকপয়েন্টে ছুরিকাঘাত ও রোম্যান ক্যাথলিক মিশনে এ মাসে গোলাগুলির ঘটনা রয়েছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close