অন্য পত্রিকা থেকে

ব্রিটেনের অর্ধেক বন্যার পানিতে তলিয়ে গেলেও বক্সিং ডেতে উপচে পড়া ভীড়

সৈয়দ সেলিম আহমেদ: গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বৃটেনে নর্থ ইষ্ট সহ স্কটল্যান্ড প্রভৃতি শহরে বন্যার প্রকোপ থাকলেও মাঝে কিছুটা উন্নতি হচ্ছিলো। কিন্তু ক্রিস মাস ডে থেকে নদীতে অতিরিক্ত বৃস্টির পানিতে নর্থ ইষ্ট এ বন্যার পানিতে ঘর বাড়ি রাস্তা ঘাট সব তলিয়ে গেছে। ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ার সহ বহু এলাকায় পাচ ফুট পর্যন্ত পানিতে তলিয়ে গেছে।

পরিস্থিতি ভয়ানক আকার ধারণ করায় সরকার সেনাবাহিনী তলব করেছে। ফায়ার সার্ভিস, সেনাবাহিনী, স্থানীয় কাউন্সিল দিন রাত চেষ্টা করে যাচ্ছে লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিতে, বন্যার পানি থেকে ঘর বাড়ি রক্ষায় সেনাবাহিনীর সাথে সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দারা স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে এগিয়ে এসেছেন। আরো ২৫ বন্যার সতর্কতা জারি করেছে মেট অফিস। রেড এলার্ট এখনো জারি রয়েছে।

একদিকে অধিকাংশ মানুষ পানিবন্দি থাকায় এবারের ক্রিস মাস তাদের কাছে ঘর বাড়ি ও জান মাল রক্ষায় ব্যস্ততার দরুন সেভাবে পালন করা সম্ভব হয়নি। কেউ কেউ দলবেধে পথের মধ্যে বেরিয়ে এসে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে সেলিব্রেশন করেছেন।

ক্রিস মাসের পরের দিন ব্রিটেন জুড়ে বক্সিং ডের সেলকে কেন্দ্র করে হ্যাড়ডস, সেলফ্রিজ, নেক্সস্ট দোকানের মধ্যে মানুষের উপচে পড়া ভীড় পরিলক্ষিত হয়। রাত তিনটা থেকে কয়েক লক্ষ লোক সারিবদ্ধভাবে ভোর ৬টার দোকান খুলে সেল শুরুর সাথে সাথে ঢোকার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে পড়েন।

অপরদিকে সরকারি বিভিন্ন সংস্থা সহ এনভায়রনম্যান্ট মিনিস্টার বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন ও ডেভিড ক্যামেরন জরুরী কোবরা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছেন- উদ্ভূত বন্যা কবলিত ক্ষতিগ্রস্থ জনগনকে সহায়তা দানের জন্য।

সারা বছর যারা ব্রিটেনের মধ্যে থেকে টেলিভিশনে ব্রিটেনের বাইরের জনগনের জন্য চ্যারিটি করেন, তাদের উচিৎ এবং আমাদের সকলেরই দায়িত্ব বন্যা দুর্গত মানুষদের সাহায্যার্থে এগিয়ে আসা। এই মুহুর্তে মানুষের মানসিক, কায়িক এবং অন্যান্য লজিস্টিক সাপোর্ট সহ অন্যান্য জরুরী সহযোগিতা প্রয়োজন। নামে বেনামের চ্যারিটি ওয়ালারা কি একটু ভেবে দেখবেন ?

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close