অন্য পত্রিকা থেকে

সিলেটজুড়ে নিরাপত্তা ঘুম হারাম নেতাদের

ওয়েছ খছরু: প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে সিলেটজুড়ে নেয়া হচ্ছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা। এক সপ্তাহ ধরে সিলেটে শুরু হয়েছে নিরাপত্তা প্রস্তুতি। ব্যস্ত হয়ে উঠেছে প্রশাসন। নেতাকর্মীদের ঘুম হারাম। দফায় দফায় হচ্ছে প্রস্তুতি বৈঠক। তৃণমূলে চালানো হচ্ছে প্রচারণা। মাইকিং চলছে গ্রামে গ্রামেও।

প্রধানমন্ত্রীর এবারের সফরকালে সিলেটের আলীয়া মাদরাসা মাঠের সমাবেশকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেছে আওয়ামী লীগ। এ সমাবেশে লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটানোর চেষ্টা শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে সিলেটে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে আওয়ামী লীগও। আগামী ২১শে জানুয়ারি সিলেটে সফর করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরকালে তিনি ওলিকুল শিরোমণি হজরত শাহজালাল (রহ.) ও হজরত শাহপরান (রহ.) মাজার জিয়ারত করবেন।

এরপর তিনি মদন মোহন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। বিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলীয়া মাদরাসা ময়দানে জনসভায় ভাষণ দেবেন। জেলা প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী সিলেটে সফরকালে কমপক্ষে ২৫টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ডিসেম্বরেই সিলেটে আসার কথা ছিল। সিলেটের সুরমার ওপর স্থাপিত কাজিরবাজার সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে তার আসার কথা ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই সেতুর উদ্বোধন করেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী জানুয়ারিতে সিলেটে সফরে আসছেন বলে আওয়ামী লীগ নেতাদের তরফ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রী প্রায় ৪ বছর পর এবার সিলেটে আসছেন। সর্বশেষ ২০১২ সালে তিনি সিলেটের আলীয়া মাদরাসা মাঠে আয়োজিত বিশাল সমাবেশে ভাষণ দিয়েছিলেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী সিলেট নগরে আসেননি। তবে, তিনি লন্ডন থেকে ঢাকা ফেরার পথে সিলেটে এক ঘণ্টার যাত্রাবিরতি করেছিলেন। পর পর দুবার যাত্রাবিরতিকালে ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তিনি কেবল দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। চার বছর পর সিলেটে প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে ১০ দিন ধরে প্রস্তুতি চলছে। সিলেটের জেলা প্রশাসন প্রধানমন্ত্রীর সফরের প্রস্তুতি প্রায় চূড়ান্ত করেছে।

ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসন সফরের প্রস্তুতি নিয়ে দলীয় পর্যায়ের নেতারাসহ বিভিন্ন মহলের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন। আর সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি বৈঠক করেছেন। তারা আলীয়া মাদরাসা মাঠের সমাবেশস্থলও একাধিকবার পরিদর্শন করেছেন। দুই দিন ধরে জেলা ও মহানগর পর্যায়ের নেতারা সমাবেশে ব্যাপক লোকসমাগম ঘটাতে প্রতিটি ইউনিয়ন, উপজেলা, পৌর সদরে বৈঠক করেন। এমনকি সফরকে সফল করতে সিলেট জেলা ছাড়াও বাইরের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন।

এবার প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র থেকে বহু নেতা সিলেটে এসেছেন। কয়েক দিন আগে সিলেটে আসেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। এর বাইরে প্রবাসের অর্ধশতাধিক নেতা সিলেটে এসেছেন বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে। তারাও প্রধানমন্ত্রীর সফরকে বরণ করতে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এদিকে, সিলেট শহরে এখন প্রতিদিনই হচ্ছে প্রচার মিছিল। আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে এসব প্রচার মিছিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিলেট আগমন উপলক্ষে ঘাম ঝরানো প্রস্তুতি চলছে। সিলেটের আলীয়া মাদরাসা ময়দানে সফরের দিন জনতার ঢল নামবে। সমাবেশে শুধু দলীয় নেতাকর্মীরাই নয়, সিলেটের আপামর মানুষ এতে শরিক হবেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়াও মহিলা আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে এ সফরকে সফলের প্রস্তুতি চলেছে। এদিকে, কয়েক দিন আগে সিলেটে এক ঝটিকা সফরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত প্রধানমন্ত্রীর সফরকে সফল করতে নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে গেছেন।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর সফরে সিলেটে মানুষের ঢল নামবে। গোটা বিভাগের মানুষের স্রোত হবে মাদরাসা ময়দানের দিকে। এদিকে, প্রধানমন্ত্রীর এ সফরকে ঘিরে পুরো সিলেট নগরী এখন নতুন সাজে সাজতে শুরু করেছে। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় সৌন্দর্যবর্ধন ও রাস্তা সংস্কার করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন পর প্রধানমন্ত্রীর এ সিলেট সফরকে ঘিরে কর্মব্যস্ত সময় পার করছেন সংশ্লিষ্টরা। গোটা সিলেট নগরীকে ‘পালটে দিতে’ কাজ করছেন তারা। মদন মোহন কলেজকে সাজানো হচ্ছে নতুন সাজে।

ইতিমধ্যেই কলেজের প্রতিটি ভবনে নতুনভাবে রং করা হয়েছে। কলেজ ও এর আশপাশে করা হচ্ছে সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ। সিলেট নগরীর বিভিন্ন সড়কে লাগছে সংস্কারের ছোঁয়া। যেসব সড়ক বছরের পর বছর বেহাল ছিল, সেগুলো এখন নতুন রূপ পাচ্ছে। বিশেষ করে নগরীর বন্দরবাজার, চৌহাট্টা, রিকাবিবাজার, লামাবাজার, সুরমা পয়েন্ট, তালতলা, দরগাহগেট, আম্বরখানা, বিমানবন্দর সড়ক সংস্কার সাধন করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর যাতায়াতের প্রস্তুতি রাস্তার খানাখন্দ ভরে গিয়ে পিছঢালাই করা হয়েছে। রিকাবিবাজারস্থ গোলচত্বরে লেগেছে সৌন্দর্যের ছোঁয়া। দীর্ঘদিন অবহেলায় পড়ে থাকা চত্বর এখন নান্দনিক রূপ পেয়েছে। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে সিলেটের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে শোভাবর্ধনকারী ফুলগাছ লাগানো হচ্ছে।

সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিব জানিয়েছেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে সিলেটকে নতুনরূপে সাজানো হচ্ছে। সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ চলছে। কিছু কাজ ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে। এদিকে, সবার আগে সতর্ক সিলেটের পুলিশ। জঙ্গি হামলার আশঙ্কা থাকায় আগেভাগেই নেয়া হয়েছে নিরাপত্তা প্রস্তুতি। এক সপ্তাহ ধরে পুলিশের কর্মকর্তারা নজরদারি বাড়িয়েছেন।

সিলেট নগরীকে ঢেকে দেয়া হয়েছে নিরাপত্তা চাদরে। প্রতিটি মোড়ে মোড়ে চলছে পুলিশের তল্লাশি। এমনকি সমাবেশস্থল ও মদন মোহন কলেজের আশপাশের এলাকায় কয়েক স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা ইতিমধ্যে গ্রহণ করা হয়েছে। এ নিরাপত্তাব্যবস্থা দিন দিন আরও বাড়ানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি (মিডিয়া) মো. রহমতুল্লাহ জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য সিলেটে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

 

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close