দুনিয়া জুড়ে

ফুয়েলের দাম হ্রাসে কমছে বিমান ভাড়া

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: জ্বালানি তেলের দাম কমার সাথে সাথে কমে আসছে বিমানের টিকিটের দামও। সামনের মাসগুলোতে টিকিটের দাম আরো কমে আসবে বলে আশা করছেন বিমানসংস্থা শিল্পের বিশেষজ্ঞরা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিমানসংস্থাগুলোর খরচের এক তৃতীয়াংশই ব্যয় হয় জ্বালানির পেছনে। গত এক বছরে তেল ও জেট ফুয়েলের দাম দুই তৃতীয়াংশ কমে যাওয়ায় বিমান সংস্থাগুলোর পরিচালন ব্যয় ২০ ভাগ কমে যেতে পারে।

টিকিটের দাম কমে আসায় স্বভাবতই উপকৃত হবে যাত্রীরা। ২০১৪ সালের মাঝামাঝি সময়ে প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ছিল ১০০ ডলারের বেশি। এখন দাম দুই-তৃতীয়াংশের বেশি কমে নেমে এসেছে ৩০ ডলারের নিচে। তেলের এই নিম্নমুখী দামে লাভের মুখ দেখতে শুরু করেছে কয়েক মাস আগেও লোকসানে থাকা বিমান সংস্থাগুলো।

হপারের প্রধান তথ্য বিজ্ঞানী প্যাট্রিক সুরি বলেন, অভ্যন্তরীণ রুটে গত এক বছরে বিমানের টিকিটের দাম ১৪ ভাগ কমে গেছে। সুরি বলেন, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে টিকিটের দাম কমার মূল কারণ জ্বালানির দাম কমা। এছাড়া কম খরচের (লো কস্ট) বিমানসংস্থাগুলোর তীব্র প্রতিযোগিতা তো রয়েছেই।

জ্বালানি তেলের দাম কমায় এয়ারলাইনগুলোর মধ্যে এখন তীব্র প্রতিযোগিতাও চলছে। ভাল মানের সার্ভিসের সাথে সাথে তুলনামূলক কম দামে টিকিটি বিক্রি শুরু করে দিয়েছেন তারা।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close