অন্যকিছু

তিনজন নারীর মধ্যে মা কে

অন্যকিছু ডেস্ক: একই রকম দেখতে তিনজন নারীর ছবি। মনে হতে পারে একই মায়ের গর্ভে জন্ম নেয়া তিন বোন। কিন্তু বাস্তবে তা নয়। এ তিন নারীর মধ্যে একজন মা। অন্য দু’জন তার গর্ভে জন্ম নেয়া যমজ মেয়ে। কিন্তু ছবি দেখে বোঝার উপায় নেই কে মা আর কে মেয়ে।

কারণ, মায়ের চোখেমুখে বয়স বাড়ার কোন ছাপ নেই। দু’মেয়েকে দেখতে যেমন হুবহু সেই একই রকম মাও। তাই যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানাপোলিসের এই মা-মেয়ের ছবি নিয়ে সারা বিশ্বে চলছে তোলপাড়। যে-ই পাচ্ছেন এ ছবি খুব বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে মা মেয়ের পার্থক্য নির্ধারণের চেষ্টা করছেন। ইন্ডিয়ানাপোলিসের হাই স্কুল পড়–য়া এক শিক্ষার্থী কেইলান মাহোমেস গত সপ্তাহে নিজেদের এই ছবিটি ধারণ করে তা পোস্ট করেন অনলাইনে।

এতে আছেন তার যমজ বোন কিলা ও তার মা। ইন্টারনেটে ছবি পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে তা হিট হতে থাকে। সব বয়সের মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ে মা মেয়ের পার্থক্য বের করতে। এরই মধ্যে এই ছবিটি ২০ হাজার বারের বেশি রি-টুইট হয়েছে।

মিডিয়ায় বলা হচ্ছে, কেইলান তার বোন ও মায়ের ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে ২৮শে জানুয়ারি। সঙ্গে ক্যাপশন জুড়ে দেয়- মা, আমি ও আমার যমজ বোন। কেইলান হয়তো কখনো আন্দাজও করতে পারেন নি যে, তার পোস্ট করা এই ছবি সারা বিশ্ব এভাবে লুফে নেবে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে তারা তিনজনে বসে আছেন একটি গাড়িতে। এতে সামনের দিকের দু’জনের চুলের অংশবিশেষ সামনের দিকে এনে ছাড়া।

অন্যজন পিছনের সিটে বসে আছেন। তার চুল কিছুটা পাশ দিয়ে নামিয়ে রাখা। আরেকটি ছবিতে তাদেরকে একই সঙ্গে দেখা যাচ্ছে। তাদের রয়েছে একই রকম ভ্রু। একই রকম চাহনি। মুখাবয়ব একই রকম। এতে মানুষ হতবিহ্বল হয়ে পড়ছে এর মধ্যে মা কোনটি! ছবিটি লাইক করেছে ৩১ হাজারেরও বেশি। কেউ কেউ মন্তব্য করছেন তিন নারীই বোনের মতো।

তবে কেইলান লিখেছেন, বিশ্বাস করুন আমরা তিন বোন নই। আমার একটিই বোন আছে। সঙ্গে অন্যজন আমার মা। অন্যরা কেইলানের কাছে আবেদন জানিয়েছেন কে তাদের মা তা প্রকাশ করতে। মিডিয়ায় যখন এত মাতামাতি তখন কেইলান ফাঁস করে দিয়েছেন গোপন তথ্য। বলেছেন, সবার বামে যিনি বসে আছেন তিনিই আমার মা। আর বোন বসে আছে পিছনের সিটে। ছবিতে মাঝখানে। বলেছেন, আমার মায়ের বয়স এখন ৪৩ বছর।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close