লন্ডন থেকে

কারী শিল্প রক্ষায় জব প্লেস এর বিশেষ উদ্যোগ জানাতে সংবাদ সম্মেলন

শীর্ষবিন্দু নিউজ: কারী শিল্পের চলমান স্টাফ সংকট মোকাবেলায় রেস্টুরেন্টগুলোর জন্য দক্ষ স্টাফ তৈরীতে বিভিন্ন প্রফেশনাল ট্র্রেনিং কোর্স চালু করছে জব প্লেস। গত বুধবার পূর্ব লন্ডনের ব্রিকলেইনের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে আয়োজন করে জব প্লেস।

জব প্লেস কতৃপক্ষ জানান, বেশ কিছুদিন যাবত ব্রিটেনে প্রতি সাপ্তাহে একাধিক রেস্টুরেন্ট বন্ধ করতে বাধ্য হচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। স্টাফ সংকটের কারনে এমনকি অনেক জায়গায় রেস্টুরেন্টের ম্যানু কাট করতে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের। কোন কোন রেস্টুরেন্ট মালিক দু বেলার পরির্বতে এক বেলা রেস্টুরেন্টে খোলা রাখতে বাধ্য হচ্ছে। কারি ইন্ড্রাটির দীর্ঘ মেয়াদী স্টাফ সংকট দূরত করতে দক্ষ স্টাফ তৈরী করতে জব প্লেস এর এই বিশেষ উদ্যোগ।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন জব প্লেস এর সিইও আবিদুর রহমান সিমু, হেড অফ মার্কেটিং টনি হাসিব, পাবলিসিটি অফিসার ডেনিয়েল টেইলর, রিক্রুয়েটমেন্ট ম্যানেজার আডেলবার্ট। অন্যান্যদের মধ্যে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ হাসনাত হোসেইন এমবিই, ব্রিটিশ বাংলাদেশী ক্যটারার্স এসোসিয়েশন প্রেসিডেন্ট ইয়াফর আলী, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট কামাল জাহাঙ্গীর মিয়া, মারুফ আহমেদ।

সংবাদ সম্মেলনে সিইও আবিদুর রহমান সিমু জানিয়েছেন তাদের ভবিষ্য পরিকল্পনা হচ্ছে ভবিষ্যতের জন্য ভালো কারি শেফ তৈরী করা। তিনি বলেন, আমাদের প্রাথমিক প্রকল্পের রয়েছে কারী ইন্ড্রির জন্য ট্রেনিং একাডেমি মাধ্যমে আগামী ২০১৯ সালের মধ্যে ৬০জন শেফ তৈরী। যাদের অধিকাংশই হবেন ইউরোপিয় ইউনিয়নভুক্ত নাগরিক। তিনি বলেন, আমাদের এইম হচ্ছে ব্রিটিশ কারি ইন্ড্রাট্রির জন্য টপ ক্লাস শেফ তৈরি করা।

সংবাদ সম্মেনে বলা হয় কারি শিল্প বন্ধের পিছনে শুধু দক্ষ শেফের অভাব নয়। এখানে অভাব রয়েছে যথেষ্ট ট্রেনিং সুবিধার, কিচেন এসিসটেন্স, কমি ওয়াইটারসসহ নানান সমস্যা। এটাকে কিভাবে পরিবর্তন করা যায়? কিভাবে এই ব্যবধান কমিয়ে আনা যায়? তা নিয়ে কাজ করছে জব প্লেস। তিনি বলেন, জস প্লেস হচ্ছে একমাত্র রেস্টুরেন্ট রিক্রিুয়েটার্স যারা ভিন্ন বেকগ্রাউন্ডের মানুষ দিয়ে কারি কিচেনকে রক্ষার চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, জব প্লেস ট্রেনিং প্রাপ্ত ইউরোপিয়ান কর্মী দিয়ে ব্রিটিশ কারি ইন্ড্রাট্রি রক্ষা কাজ করবে। এতে করে লংট্রার্মে বাংলাদেশী রেস্টুরেন্টগুলি উপকৃত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় এ বছর ব্রিটের ৫০টির বেশি রেস্টুরেন্টে ‘জব প্লেস’ স্টাফ সর্বরাহ করেছে। তিনি বর্তমান সংকটময় মুহুর্তে কারি শিল্প রক্ষায় যে সকল সুবিধা রয়েছে সেগুলি গ্রহন করতে রেস্টুরেন্টে মালিকদের প্রতি আহবান জানান। বিশেষ করে ইউরোপিয়ানদের ট্রেনিং দিয়ে রেস্টুরেন্টের ওয়াইটার, কিচেনপটার করতে সবাইকে উৎসাহিত করেন।

সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা বলেন, তৃতীয় প্রজন্মের ব্রিটিশ বাংলাদেশীরা প্রফেশনাল ক্যরিয়ারকে বেশী গুরুত্ব দেওয়াতে পারিবারিক ঐতিহ্য কারী ইন্ট্রাস্ট্রি হুমকির মুখে পড়েছে। সেই সাথে কঠোর ইমিগ্রেশন নীতিমালার কারণে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ শেফ আনা বন্ধ করে দেওয়াতে এই সংকট আরো প্রকোট হয়েছে। সংকট মোকাবেলায় জব প্লাস ইউরোপের দেশ গুলো থেকে আসা কর্মীদের কারী ইন্ড্রাস্ট্রির জন্য প্রস্তুত করতে বিভিন্ন কোর্স চালু করেছে। জব প্লাসের প্রশিক্ষিত কর্মীরা কারী শিল্পের স্টাফ সংকট মোকাবেলায় ভুমিকা রাখবে বলে মনে করেন আয়োজকরা।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close