Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

নতুন ইতিহাস রচনা করলেন বারাক ওবামা

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: নতুন এক ইতিহাস রচনা করলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। প্রায় ১০০ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার মধ্যে যে তিক্ততা বিরাজমান ছিল তিনি তা দূর করে দিলেন। আশা দেখালেন নতুন এক যুগের, যেখানে কিউবা ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে গড়ে উঠবে এক নতুন বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। কিউবার মানুষ পাবে আরও বেশি স্বাধীনতা। আমেরিকানরা পাবে অর্থনীতির নতুন পথ।

এমনই এক স্বপ্ন নিয়ে ৮৮ বছরের মধ্যে প্রথম যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে বারাক ওবামা কিউবা পৌঁছেছেন। এয়ার ফোর্স ওয়ান কিউবার মাটি স্পর্শ করামাত্র তিনি টুইটারে কিবার নাগরিকদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।

টুইটে লিখেছেন, আকিউ বোলা কিউবা? সবেমাত্র মাটি স্পর্শ করলাম। কিউবার মানুষের সঙ্গে কথা বলতে ও সরাসরি তাদের কাছ থেকে শুনতে অপেক্ষায় আছি। বিমানবন্দরে তাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেয়া হয়। পরে তিনি ইমাকুলেট কনসেপশনে ভার্জিন মেরি ক্যাথেড্রাল সফর করেন। সেখানে তাকে অভিবাদন জানান কার্ডিনাল জেমি ওরতেগা।

সন্ধ্যার দিকে তিনি নৈশভোজ সারেন। তিনি রাজধানী হাভানায় হোসে মারতি এয়ারপোর্টে পৌঁছালে কূটনীতিকরা তাকে স্বাগত জানান, যেটা এখন থেকে প্রায় ৫ বছর আগে কল্পনাও করা যেত না। এ সফরের আগে সিএনএনকে দেয়া সাক্ষাতকারে ওবামা বলেন, এ সফরের মধ্য দিয়ে সূচনা হতে যাচ্ছে সম্পর্কের, ইতি নয়। এর মধ্য দিয়ে আমরা কিউবার মানুষের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত হতে পারবো। কিউবার সরকারের সঙ্গে সরাসরি আলোচনা করতে পারবো। আমরা যে মূল্যবোধে বিশ্বাস করি সেগুলো নিয়ে তাদের সঙ্গে কথা বলবো। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা হাভানায় যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস উদ্বোধন করে এ সফরকে ঐতিহাসিক বলে অভিহিত করেছেন।

পরে কিউবার প্রেসিডেন্ট রাউল ক্যাস্ত্রোর সঙ্গে তার বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। তবে কিউবা বিপ্লবের নায়ক ও সাবেক প্রেসিডেন্ট ফিদেল ক্যাস্ত্রোর সঙ্গে তার বৈঠকের কোন সূচি নেই। প্রেসিডেন্ট রাউল ক্যাস্ত্রোর সঙ্গে বৈঠকে ওবামা বাণিজ্য ও রাজনৈতিক সংস্কার নিয়ে কথা বলবেন। এ সফরে তার সঙ্গে রয়েছেন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা, মেয়ে সাশা ও মালিয়া। কিউবা পৌঁছার পর যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন ওবামা।

তিনি বলেন, কিউবা পৌঁছে চমৎকার এক অনুভূতি তার। ওবামা বলেন, ১৯২৮ সালে প্রেসিডেন্ট কেলভিন কুলিজ যুদ্ধজাহাজে করে এখানে এসেছিলেন। এতে কিউবা পৌঁছাতে তার সময় লেগেছিল তিন দিন। কিন্তু আমার লেগেছে মাত্র তিন ঘন্টা। প্রথমবারের মতো এয়ারফোর্স ওয়ান কিউবায় অবতরণ করেছে। ওবামা বলেন, অতীতের চেয়ে উজ্বল এক ভবিষ্যতের জন্য তার এ সফর। পরে তিনি ওল্ড হাভানা বা হাভানার পুরনো শহর ঘুরে দেখেন। এ সময় রাস্তায় অপেক্ষমাণ কিউবার নাগরিকদের সঙ্গে তার কথা বলার কথা ছিল। কিন্তু মৌসুমি ঝড়ের কারণে তা বাধাগ্রস্ত হয়।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close