স্বদেশ জুড়ে

আওয়ামীলীগ নেতাকে সম্মান না করায় মারাত্নক পিটুনি খেয়ে ইউএনও হাসপাতালে

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগ নেতাদের পিটুনিতে আহত হয়েছেন ফেনীর পরশুরাম উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এইচএম রকিব হায়দার। গতকাল দুপুরে উপজেলার ধনিকুণ্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জেলা আওয়ামী লীগ নেতা খায়রুল বাশার মজুমদার তপন ও তার লোকজন প্রকাশ্যে ইউএনও’র ওপর হামলা চালান। উপর্যুপরি কিল-ঘুষিতে আহত হন ইউএনও। তপন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি।

ফেনী জেলা প্রশাসক মো. আমিন-উল-আহসান জানান, শুক্রবার সকালে বিলোনীয়া স্থলবন্দর পরিদর্শন ও একটি সমাবেশে অংশ নিতে পরশুরাম যাচ্ছিলেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। এ সময় মন্ত্রীকে অর্ভ্যথনা জানাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচএম রকিব হায়দার ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা ফেনী-পরশুরাম সড়কের ধনিকুন্ডা এলাকায় অপেক্ষা করছিলেন। মন্ত্রী ঘটনাস্থলে আসার কিছুক্ষণ আগে ওই স্থানে স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের উদ্বোধন উপলক্ষে মন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা খায়রুল বাসার মজুমদার তপন ও তার নেতা-কর্মীরা প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচএম রকিব হায়দার ওই স্কুলের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগ নেতা তপনকে সম্মান না করায় তপন ইউএনও’র সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই নেতা ও তার কর্মীরা ইউএনও রকিবকে প্রকাশ্যে কিল-ঘুষি মেরে শারীরিকভাবে জখম করেন। খবর পেয়ে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা আহত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রকিব হায়দারকে পরশুরাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

পরশুরাম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. হাবিবুল করিম জানান, আহত ইউএনও মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। তার মাথায় সিটিস্ক্যান করানো প্রয়োজন। উন্নত চিকিৎসার জন্য দুপুরে তাকে ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ফেনী জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি খাইরুল বাশার মজুমদার তপন হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ইউএনও আহত হওয়ার খবর পেয়ে

তিনি তার শারীরিক খোঁজ খবর নিতে হাসপাতালে গেছেন। কে বা কারা হামলা করেছে তা তিনি অবগত নন। এ ঘটনায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান।

হামলার ঘটনায় কাউন্সিলরসহ আটক ৩

ওদিকে ইউএনও এইচএম রকিব হায়দারের উপর হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহাজাহান খান। বিকেলে ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত রকিব হায়দারকে দেখে সাংবাদিকদের একথা জানান। তিন বলেন, প্রটোকলে কর্মরত অবস্থায় যারা ইউএনও’র উপর হামলা চালিয়েছে তারা যদি দলীয় নেতা-কর্মী হয়ে থাকে তাহলে তাদের বরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে পুলিশ সুপার রেজাউল হক জানান, এঘটনায় বিকেলে ফেনীর গোয়ান্দা পুলিশ জিঞ্জাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো- পরশুরাম পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা শ্রমিক লীগের আহাবায়ক আবদুল মান্নান, স্থানীয় যুবলীগ নেতা পারভেজ ও গোডাউনের গম ব্যাবসায়ী ছালেহ আহাম্মদ ছালুর ছেলে রাশেদুল হাসান রাশু।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ধনিকুন্ড এলাকায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খায়রুল বাসার মজুমদার তপন ও তার দলীয় নেতা-কর্মীরা প্রকাশ্যে কিল-ঘুষি মেরে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এইচএম রকিব হায়দারকে আহত করে। আহত রকিব ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে চিকিসাধীন রয়েছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close