গোপন রোগ

ঋতুস্রাবের ব্যথা কমাতে যা করবেন

শাশ্বতী মাথিন: ঋতুস্রাবের ব্যথা কমবেশি সবারই হয়। ঋতুস্রাবের সময় পেট ব্যথা, শরীরে ব্যথা, অস্বস্তি। এগুলো খুব প্রচলিত সমস্যা। তবে কিছু বিষয় মেনে চললে এগুলো অনেকটাই প্রতিরোধ করা যায়। স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি জানিয়েছে ঋতুস্রাবের সমস্যা সমাধানের কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি। হলুদ দুধ খেতে পারেন ঋতুস্রাবের সময়।

উষ্ণ পরশ

হট ওয়াটার ব্যাগে গরম পানি ভরে সেটার পরশ নিলে অনেকটা আরাম পাওয়া যায়। ব্যথা অনেকটা কমে এবং পেশি শিথিল হয়।

• হট ওয়াটার ব্যাগে গরম পানি ভরে একটানা ৫ থেকে ১০ মিনিট তলপেটে রাখুন। একটু বিরতি দিয়ে আবার দিন। তবে অতিরিক্ত গরম পানি ব্যবহার করবেন না।

গরম পানির গোসল

ঋতুস্রাবের সময় কুসুম কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল আপনাকে আরাম দেবে। এটি পেটের পেশিকে শিথিল করবে এবং ব্যথা কমাবে।

পেটে ম্যাসাজ

পেটের চারপাশে ম্যাসাজও কিন্তু ব্যথা কমাতে অনেকটাই সাহায্য করবে।

* হালকা গরম জলপাইয়ের তেল দিয়ে তলপেটে ম্যাসাজ করুন।

* ধীরে ধীরে চক্রাকারভাবে পেটে ম্যাসাজ করুন। ৫ থেকে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। দিনে কয়েকবার এভাবে ম্যাসাজ করুন।

ভিটামিন-সি জাতীয় খাবার খান

ঋতুস্রাবের জটিলতা কমাতে ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ খাবার খাদ্যতালিকায় রাখা প্রয়োজন। এটি জরায়ু থেকে প্রোজেস্টেরল হরমোন নিঃসরণ হতে সাহায্য করে। এতে ব্যথা কম হয়। ভিটামিন-সি জাতীয় খাবারের জন্য কমলা, ব্রকলি, টমেটো, পেঁপে, আমলকী ইত্যাদি খাদ্যতালিকায় রাখুন।

তরল

প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করুন। গ্রিন টি, তাজা ফল, সবজির জুস, নারকেল পানি ইত্যাদি খেতে পারেন এ সময়ে। তবে কফি পান, মদ্যপান এগুলো এড়িয়ে যাওয়া ভালো।

হলুদ

ঋতুস্রাবের ব্যথা কমাতে হলুদ খুব ভালো উপাদান। এক গ্লাস দুধে এক চা চামচ হলুদের গুঁড়া যোগ করুন। একে অল্প আঁচে ফোটান। এরপর পান করুন। দিনে দুবার এটি পান করতে পারেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close