আরববিশ্ব জুড়ে

মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল এনেছে সৌদিআরব

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: সৌদি আরবের মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল এনেছেন বাদশা সালমান বিন আব্দুল আজিজ। যাতে বাদ পড়েছেন ২০ বছরের বেশি সময় ধরে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা আলি আল-নাইমি। খবর দিয়েছে আরব নিউজ।

একই নিউজের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, শনিবার জাতীয় টেলিভিশনে বাদশার এই ঘোষণা এসেছে। মন্ত্রিত্ব থেকে সরিয়ে আলি আল নাইমিকে দেওয়া হয়েছে রাজকীয় আদালতের উপদেষ্টার দায়িত্ব।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় অপরিশোধিত তেল রপ্তানিকারক দেশ সৌদি আরব তেলের উপর নির্ভরশীলতা অবসানে গত মাসে বড় ধরনের অর্থনৈতিক সংস্কার কার্যক্রমের ঘোষণা দেয়। তেলের দাম পড়তির মধ্যেও গত বছর দেশটির রাজস্বের ৭০ শতাংশ আসে এই পণ্য থেকে। এরই মধ্যে তেল রপ্তানির আয় কমে যাওয়ায় আন্তর্জাতিক ব্যাংকগুলো থেকে ১০ বিলিয়ন ডলার ঋণ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। ১৯৯০ সালে ইরাকের কুয়েত দখলের সময় ঋণ নেয়ার ২৫ বছর পর তেল রপ্তানির আয় কমে যাওয়ায় ফের ঋণ নিতে বাধ্য হচ্ছে দেশটি।

শুধু গত বছরই তাদের তেল রপ্তানি থেকে আয় কমেছে ২৩ শতাংশ। আলি আল-নাইমি ২০ বছর ধরে বিশ্ব তেল বাজারে সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসেবে বিবেচিত ছিলেন বলে বিবিসি তাদের প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে। আরব নিউজ জানিয়েছে, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে জ্বালানি, শিল্প ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। আর এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ।

বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী তৌফিক আল-রাবিয়াহকে দেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব। এছাড়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পদ থেকে ফাহাদ আল-মুবারককে সরিয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আহমেদ আল-খুলাইফি।

পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়কে বিলুপ্ত করে নবগঠিত মন্ত্রণালয়ের নাম দেওয়া হয়েছে পানি, পরিবেশ ও কৃষি মন্ত্রণালয়। শ্রম ও সামাজিক সম্পর্ক বিষয়ক মন্ত্রণালয়েকে শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে একীভূত করা হয়েছে। হজ মন্ত্রণালয়ের নামেও পরিবর্তন এনেছে সৌদি আরব। নতুন নাম হয়েছে হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়। এই মন্ত্রণালয়ে মোহাম্মদ বিনতিন স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন বন্দর আল-হাজ্জারের জায়গায়।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close