রাধুনী

শবে বরাতে নানান স্বাদের হালুয়া

শবে বরাতে হালুয়া তো বানানোই হয়। সব সময় যেভাবে হালুয়া তৈরি হয়, তার সঙ্গে বাড়তি কিছু যোগ করলে স্বাদে আসে ভিন্নতা। রেসিপি দিয়েছেন সিতারা ফিরদৌস

আনার কলি হালুয়া: উপকরণ: ছানা ১ কাপ, ডিম ৩টি, গুঁড়ো দুধ আধা কাপ, গুঁড়ো চিনি দেড় কাপ, এলাচি গুঁড়ো ১ চা-চামচ, ঘি ৪ টেবিল চামচ, কাজুবাটা ২ টেবিল চামচ, পাইনাপেল এসেন্স আধা চা-চামচ ও পেস্তা কুচি ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি: পেস্তা, গুঁড়ো দুধ, ঘি বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। প্যানে ঘি গরম করে ছানা দিয়ে মাঝারি আঁচে নাড়াচাড়া করতে হবে। সাত-আট মিনিট পর দুধ দিতে হবে যখন হালুয়া প্যানের তলা ছেড়ে আসবে। চুলা থেকে নামিয়ে পছন্দমতো আকারে কেটে নিন।

স্নো হোয়াইট হালুয়া

স্নো হোয়াইট হালুয়াউপকরণ: ময়দা ১ কাপ, দুধ ২ কাপ, ঘি পৌনে ১ কাপ, চিনি ১ কাপ, এলাচি গুঁড়ো ১ চা-চামচ, কেওড়া ১ টেবিল চামচ, পেস্তা, আমন্ড ও কিশমিশ ৩ টেবিল চামচ।

প্রণালি: চিনি, দুধ চুলায় দিয়ে ফুটে উঠলে নামিয়ে নিন। ঘি গরম করে ময়দা ঘিয়া রং করে ভেজে গরম দুধ, এলাচি গুঁড়ো, কেওড়া দিয়ে নাড়তে হবে। ঘন হয়ে এলে পেস্তা, আমন্ড, কিশমিশ দিয়ে পরিবেশন করার পাত্রে ঢেলে ঠান্ডা হলে পরিবেশন করুন।

গাজরের বোম্বাই হালুয়া

গাজরের বোম্বাই হালুয়াউপকরণ: গাজর ৫০০ গ্রাম, দুধ আধা লিটার, কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ, গুঁড়ো দুধ ১ কাপ, দারুচিনি গুঁড়ো আধা চা-চামচ, এলাচি গুঁড়া আধা চা-চামচ, কেওড়া ১ টেবিল চামচ, জাফরান আধা চা-চামচ, পেস্তা, আমন্ড ও কাজু কুচি আধা কাপ এবং ঘি আধা কাপ।

প্রণালি: কেওড়া জাফরানে ভিজিয়ে রাখতে হবে। গাজর খোসা ছাড়িয়ে সবজি কুরানি দিয়ে ঝুরি করে তরল দুধ দিয়ে সেদ্ধ করে শুকিয়ে নিতে হবে। প্যানে ঘি গরম করে গাজর দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনে কনডেন্সড মিল্ক, এলাচি, দারুচিনি গুঁড়ো দিয়ে ১০-১২ মিনিট নাড়াচাড়া করে কেওড়া ভেজানো জাফরান দিয়ে অল্প অল্প করে গুঁড়ো দুধ দিতে হবে আর নাড়তে হবে। অর্ধেক বাদাম দিতে হবে, হালুয়া তাল বেঁধে এলে ঘি মাখানো ডিশে ঢেলে ওপরে বাকি বাদাম ছড়িয়ে দিয়ে সমান করে পছন্দমতো টুকরো করে পরিবেশন করতে হবে।

ছোলার ডালের দরবারি হালুয়া

ছোলার ডালের দরবারি হালুয়াউপকরণ: ছোলার ডাল ৫০০ গ্রাম, দুধ ১ লিটার, চিনি ১ কেজি, ঘি ১ কাপ, মালাই ১ কাপ, কাজুবাটা ২ টেবিল চামচ, আমন্ডবাটা ২ টেবিল চামচ, খয়া ক্ষীর (দুধের ক্ষীরশা) ১ কাপ, দারুচিনি গুঁড়া আধা চা চামচ, এলাচি গুঁড়া আধা চা চামচ, পেস্তা, আমন্ড, কাজু, কিশমিশ মিলিয়ে আধা কাপ, জাফরান আধা চা-চামচ ও কেওড়া ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি: দুধ জাল দিয়ে আধা লিটার করে রাখতে হবে। ডাল ধুয়ে ১ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ৪ কাপ পানি, ২ টুকরো দারুচিনি, ২টি এলাচি দিয়ে সেদ্ধ করুন। ডালের পানি শুকিয়ে গেলে দুধ দিয়ে সেদ্ধ করতে করতে শুকিয়ে গেলে বেটে নিতে হবে। জাফরান কেওড়ায় ভিজিয়ে রাখতে হবে। প্যানে ঘি গরম করে ডাল দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনে চিনি, দারুচিনি, এলাচি গুঁড়ো দিয়ে সাত-আট মিনিট ভুনে খয়া ক্ষীর, কাজু ও আমন্ড বাদামবাটা দিয়ে ভুনতে হবে। হালুয়া তাল বেঁধে এলে চুলা বন্ধ করে দিন। কিশমিশ, অর্ধেক বাদাম, কেওড়া ভেজানো জাফরান, মালাই দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে পরিবেশন করার পাত্রে ঢেলে হালুয়ার ওপরে বাকি বাদাম ছিটিয়ে দিয়ে ঠান্ডা হলে পছন্দমতো টুকরো করতে হবে।

পেঁপের ক্রিস্টাল হালুয়া

পেঁপের ক্রিস্টাল হালুয়াউপকরণ: কাঁচা পেঁপে ৫০০ গ্রাম, চিনি দেড় কাপ, ঘি আধা কাপ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কেওড়া ১ টেবিল চামচ, এলাচি গুঁড়ো আধা চা-চামচ, চায়নাগ্রাস ২ টেবিল চামচ, কিশমিশ ১ টেবিল চামচ এবং পেস্তা, আমন্ড, কাজু, আখরোট মিলিয়ে সিকি কাপ।

প্রণালি: পেঁপে সেদ্ধ করে বেটে নিতে হবে। চায়নাগ্রাস আধা কাপ গরম পানিতে ভিজিয়ে রেখে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে রাখতে হবে। প্যানে ঘি গরম করে পেঁপেবাটা দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনে নিন। এবার চিনি দিয়ে ভুনতে হবে। চিনি গলে গেলে লেবুর রস, কেওড়া, এলাচি গুঁড়ো দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে চায়নাগ্রাস, কিশমিশ কিছু বাদাম দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে পরিবেশন পাত্রে ঢেলে ওপরে বাকি বাদাম ছিটিয়ে চার-পাঁচ ঘণ্টা জমিয়ে পরিবেশন করুন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close