এশিয়া জুড়ে

জাপানে মুসলিমদের বিরুদ্ধে নজরদারির পক্ষেই রায়

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর ব্যাপক নজরদারির পক্ষেই রায় দিয়েছে জাপানের সুপ্রিম কোর্ট। এর আগে গোপনে মুসলিমদের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের ওপর পুলিশ নজরদারি করছে বলে বেশ কিছু ফাইল ফাঁস হয়।

এর রেশ ধরে জাপানি ১৭ ইসলামী নেতার একটি গ্রুপ সরকারের বিরুদ্ধে তাদের সাংবিধানিক অধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেয়। সে মামলায় সরকারের পক্ষেই রায় যায়। এ নিয়ে আপিল করে মুসলিমরা। দ্বিতীয় আপিলেও তারা হেরে যান।

অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট লিখেছে, ২০১০ সালে পুলিশের ১১৪টি ফাইল ফছাস হয়। তাতে বলা হয়, পুলিশ গোপনে জাপানি মুসলিমদের ওপর ব্যাপকহারে নজরদারি করছে। তাদের প্রার্থনাগার, হালাল রেস্তোরা, ইসলাম সংশ্লিষ্ট সংগঠনের ওপর এ নজরদারি করা হচ্ছে। এসব তথ্য ফাঁস হওয়ার কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বিশ্বের ২০টি দেশে ফাইল শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে ওই ফাইলগুরো ডাউনলোড হয় ১০ হাজার বারেরও বেশিবার।

জাপানে মুসলিমদের ওই গ্রুপটি সরকারের বিরুদ্ধে আবেদন করেছিল তার বেশির ভাগই মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের। পুলিশের এমন নজরজারির বিরুদ্ধে লড়ছেন ১৭ জন ধর্মীয় নেতা। তার একজন মোহাম্মদ ফুজিতা। তিনি ২০ বছর আগে ইসলাম গ্রহণ করেছেন। তিনি জাপানের নাগরিক।

তিনি বলেন, পুলিশ আমাদেরকে সন্দেহজনক সন্ত্রাসী বানিয়ে ফেলেছে। আমরা তো কোন অন্যায় কাজ করি নি কখনো। তবে তারা যা-ই বলুন, ৩১শে মে তাদের দুটি আপিলই চূড়ান্তভাবে বাতিল করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ওদিকে গোপনীয়তা রক্ষার অধিকার লঙ্ঘনের দায়ে ওইসব ধর্মীয় নেতাকে ৯ কোটি ইয়েন ক্ষতিপূলণ দেয়া হয়েছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close