আরববিশ্ব জুড়ে

আইএস জঙ্গিরা আসলে ইসরায়েলি সেনা

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা সব ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর সদস্য বলে দাবি করেছেন সৌদি আরবের গ্র্যান্ড মুফতি শায়েখ আবদুল আজিজ আল শায়েখ। দেশটির জাতীয় দৈনিক সৌদি গেজেটকে দেওয়া এক টেলিফোন সাক্ষাৎকারে তিনি এ দাবি করেন।

সৌদি গেজেটের বরাত দিয়ে দি এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এ বিষয়ে মঙ্গলবার এক খবর প্রকাশ করে। সাক্ষাৎকারে দেশটির সিনিয়র স্কলারস কমিশনের চেয়ারম্যান গ্র্যান্ড মুফতি বলেছেন, ‘সন্ত্রাসবাদী এ গোষ্ঠীর সদস্যরা ইসলাম ও মুসলিমদের জন্য ক্ষতিকর। তাদের (আইএস) ইসলামের অনুসারী হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না।’ এ ছাড়া গ্র্যান্ড মুফতি আরো বলেন, ‘সৌদি নেতৃত্বাধীন ৩৪ দেশের মুসলিম জোট এ গোষ্ঠীকে পরাজিত করবে।’

গত সপ্তাহে সৌদি আরবে বিদ্রোহ এবং জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসপ্রধান আবু বকর আল বাগদাদির ইসরায়েলে হামলা চালানোর আহ্বানের পর এ দাবি করলেন সৌদি গ্র্যান্ড মুফতি। ইসরায়েলে আইএসের হামলার আহ্বানকে মিথ্যা উল্লেখ করে আজিজ বলেন, ‘আইএস জঙ্গিরা হচ্ছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর অংশ। তাই ইসরায়েলে হামলার আহ্বান সম্পূর্ণ মিথ্যা। আসল তথ্য হচ্ছে, আইএস ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর অংশ। এই সংগঠনটির মাথারা সব ইসরায়েলের সেনা অথবা সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষিত।’

গ্র্যান্ড মুফতি এ সময় আইএস নিধনে সৌদি পরিকল্পনার কথাও উল্লেখ করেন। গত ১৫ নভেম্বর সৌদি আরব এক বিবৃতিতে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়তে সৌদির নেতৃত্বে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলের ৩৪ মুসলিম দেশের সমন্বয়ে এ সামরিক জোট গঠনের ঘোষণা দেয়। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যৌথ অভিযান পরিচালনা এবং সামরিক অপারেশন সমর্থন করবে এই জোট। এই জোটে অংশ নেওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close