জাতীয়

এক ঘষাতেই আমেরিকার ডলার

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: কালো নোট। এর ওপর কেমিক্যাল-জাতীয় সাদা পাউডার মেশানো থাকত। একটি পাত্রে এই নোট রেখে তার সঙ্গে কেমিক্যাল-জাতীয় তরল পদার্থ মিশিয়ে হাত দিয়ে ঘষা দেওয়া হয়। এভাবে নোটের কালো রং মুছে বেরিয়ে আসে আসল মার্কিন ডলারের নোট। এটি কোনো জাদু নয়, একধরনের প্রতারণা।

আসল ডলারের কয়েকটি নোটে কালো রং লাগিয়ে প্রলোভন দেখানো হতো। এই ফাঁদে যারা পা দিত, তাদের কাছে প্যাকেট করা কালো নোটের বান্ডিল ও পাউডার বিক্রি করা হতো। কিন্তু পরে দেখা যেত, ঘষা দিলেও মিলতো না ডলারের আসল নোট। বরং বের হতো সাদা কাগজ।

প্রতারণার অভিযোগে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের নয়জন নাগরিক ও একজন বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করেছে র্যাব। গতকাল রোববার বিকেলে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে র্যাব-২-এর একটি দল তাঁদের আটক করে। ছবি: সাজিদ হোসেনএভাবে প্রতারণার অভিযোগে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের নয়জন নাগরিক ও একজন বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করেছে র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র্যাব)। গতকাল রোববার বিকেলে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে র্যাব-২ এর একটি দল তাদের আটক করে।

আটক বিদেশিদের মধ্যে ছয়জন ক্যামেরুন, দুজন লেসেথো ও একজন কঙ্গোর নাগরিক রয়েছেন। এঁদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি জাল নোট, জাল নোট তৈরির কেমিক্যাল, সরঞ্জাম, ইয়াবা, মোবাইল সেট ও মোবাইলের সিম জব্দ করা হয়।

সোমবার দুপুরে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান র্যাব-২ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমেদ।

আটক বিদেশিদের মধ্যে ছয়জন ক্যামেরুন, দুজন লেসেথো, একজন বাংলাদেশি ও একজন কঙ্গোর নাগরিক রয়েছেন। ছবি: সাজিদ হোসেনরাজধানীর আগারগাঁওয়ে র্যাব-২ এর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, আটক আফ্রিকানরা জাল নোট তৈরির আন্তর্জাতিক চক্রের সদস্য। এই চক্রটি বিভিন্ন লোককে মোবাইল মেসেজ ও ই-মেইল করত।

এতে বলা হতো, তাঁদের কাছে প্রচুর অব্যবহৃত মার্কিন ডলার রয়েছে। বাংলাদেশে এই ডলার তাঁরা বিনিয়োগ করতে চায়। এই ডলারের নোট কালো রং করে এ দেশে আনা হয়েছে। এভাবে প্রতারক চক্রটি বেশ কয়েকজনের সঙ্গে চুক্তি করেছে। তাঁরা ডলারের কালো নোট, জাল ডলার ও কেমিক্যাল বিক্রি করে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিত। এ ছাড়া মাদক ব্যবসায়ও এই চক্রটি জড়িত ছিল।

[youtube id=”WgOL4JFRCmI” width=”600″ height=”350″]

আটক বিদেশিদের কাছে পাসপোর্ট ছিল না জানিয়ে লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, আটক বিদেশিদের মধ্যে অনেকে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। এখানে এসে এঁরা বাংলাদেশিদের বিয়ে করে বসবাস করছে। আটক আফ্রিকানদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close