Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

ট্রাম্পের প্রচারণায় নাইজেল ফারাজ

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ব্রেক্সিট ভোটের সফল প্রচারক নাইজেল ফারাজে এবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণা শুরু করেছেন। তিনি সমর্থন দিয়েছেন রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি। সমালোচনা করেছেন ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের। বুধবার তিনি মিসিসিপিতে জ্যাকসনে কয়েক হাজার ট্রাম্প ভক্তের র্যালিতে বক্তব্য রাখেন।

এ সময়ে তিনি বলেন, রাষ্ট্রযন্ত্রের বিরুদ্ধে গিয়ে তিনি যেমন তার নিজের দেশ বৃটেনে ব্রেক্সিটের পক্ষে মূল প্রচারণা চালিয়েছিলেন সেই একই রকম কাজ করছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্পের জনসভায় তাকে পেয়ে সমর্থকদের মধ্যে দেখা গেছে উদ্দীপনা।

ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন অবৈধ অভিবাসী ইস্যুতে তার কঠোর অবস্থান থেকে সরে আসার পক্ষে কথা বলেছেন তেমনই এক সময়ে তার জনসভায় দেখা মিলল ব্রেক্সিট প্রচারণার মাস্টারমাইন্ড বলে খ্যাত বৃটিশ এ নেতার।

বুধবার ডেনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি অবৈধ অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেয়ার অবস্থান থেকে অনেকটা সরে এসেছেন।

তিনি বলেছেন, যারা যুক্তরাষ্ট্রের আইন মেনে এখানে থাকবেন তাদের সঙ্গে তিনি কাজ করতে চান। জ্যাকসনের ওই জনসভায় ট্রাম্প যখন তার প্রচারণার মাঝামাঝি তখন তিনি মঞ্চে ডেকে নেন নাইজেল ফারাজেকে। এ সময় মঞ্চে দু’নেতা করমর্দন করেন। ট্রাম্প তার মাইক্রোফেন ছেড়ে দেন ফারাজের জন্য। এ সময় বক্তব্য দেয়া শুরু করেন নাইজেল ফারাজে।

তিনি বলেন, ব্রেক্সিট ভোটের সময় প্রেসিডেননট বারাক ওবামা বৃটিশদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন ইউরোপীয় ইউনিয়নে থাকার পক্ষে ভোট দিতে। এর মধ্য দিয়ে তিনি বৃটেনের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলিয়েছেন।

তবে মার্কিন নির্বাচনে আপনারা কাকে ভোট দেবেন সম্ভবত আমি সেটা বলতে পারি না।

যদি আমি মার্কিন নাগরিক হতাম আর আপনারা আমাকে মূল্যায়ন করতেন তাহলে আমি ভোট দিতাম হিলারি ক্লিনটনকে। প্রকৃতপক্ষে হিলারি ক্লিনটন যদি আমাকে মূল্যায়ন করেন তাহলে আমি তাকে ভোট দেব না। ব্রেক্সিট বোট নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প কোন মন্তব্য করেন নি।

২৩শে জুন ওই গভভোটের আগে তিনি কিছুই বলেন নি। তখন তিনি স্কটল্যান্ডে তার নিহের একটি গলফ কোর্স ভিজিটে ছিলেন। তাও ব্রেক্সিট ভোটের পরে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close