আরববিশ্ব জুড়ে

সৌদি আরবের বিশেষজ্ঞের অভিমত: নারী নিজেই তার অভিভাবক

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: নারীরা নিজেরাই তাদের নিজের অভিভাবক। জীবনের সব বিষয়ে এবং ব্যক্তিগত বিষয়গুলোতে সিদ্ধান্ত নেয়ার ও তা সমাধানের আইনগত অধিকার আছে তাদের।

এ কথা বলেছেন সৌদি আরবের একজন সিনিয়র বোদ্ধা। তিনি হলেন কাউন্সিল অব সিনিয়র স্কলারস এর সদস্য শেখ আবদুল্লাহ আল মানিয়া। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আরব নিউজ।

আল মানিয়া বলেছেন, শুধু বিয়ের সময় নারীরা পুরুষ অভিভাবকের অধীন। তা ছাড়া নারীরা একজন পুরুষের মতো সমান অধিকার ভোট করতে পারেন।

উল্লেখ্য, সামাজিক ওয়েবসাইট টুইটারে আইনজীবী, সমাজকর্মী সহ অনেক মানুষ এক রকম প্রচারণা চালাচ্ছে। তাতে নারীদের কারো অধীনে থাকার যে রীতি তা আরও শিথিল করার দাবি করা হচ্ছে। এ বিষয়ে মত দিতে গিয়ে আল মানিয়া ওই মন্তব্য করেছেন। স্থানীয় একটি মিডিয়ার পক্ষ থেকে তার কাছে প্রশ্ন করা হয়েছিল।

সেই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, যখনই একজন নারী পরিণত বয়সে পৌঁছেন তার ওপর কোন অভিভাবকত্ব আরোপিত হয় না। তবে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম হলো বিয়ে। তিনি আরও বলেন, নারীরা হলেন আবেগী। তারাও বুদ্ধিমতী। তাদেরও আছে তাদের আর্থিক বিষয় ব্যবস্থাপনার অধিকার। তারা তাদের প্রয়োজনে কোন কিছু কেনা বা বিক্রি করতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, একজন পুরুষ আইনগত যেসব অধিকার ভোগ করেন তা একজন নারীর ক্ষেত্রেও বৈধ। বিয়ে বাদে অন্য কোন ক্ষেত্রে তাদের ওপর অভিভাবকত্ব চাপিয়ে দেয়া উচিত নয়। তিনি ব্যাখ্যা করে বলেন, একজন পরিণত নারী তিনিই, যিনি শরীয়ত অনুযায়ী নামাজ, রোজা, হজ সহ ধর্মীয় নিয়মকানুন পালনে সক্ষম।

সৌদি আরবের একজন নারী লায়লা আল মুহাম্মাদী বলেছেন, আমি এই বিশেষজ্ঞের সঙ্গে একমত। শেষ বিচারের দিনে নারী ও পুরুষকে সমানভাবে বিচার করা হবে। তাই সবারই যৌক্তিক কারণে একই রকম স্বাধীনতা থাকা উচিত।

বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া হায়াত বকর বলেছেন, এখন নারীদের অভিভাবকত্বের যে বিধান আছে তার অধীনে তাতে একজন নারী একজন পুরুষের মতো তার সুন্দর চাওয়াগুলো মেটাতে সক্ষম নন। নারীরা ইতিহাসজুড়ে তাদের সক্ষমতার প্রমাণ রেখেছেন। তারা বর্তমান সময়েও শিক্ষিকা, রাষ্ট্রনায়ক, ব্যবসায়ী ও মা হিসেবে তাদের নাম লিখিয়ে যাচ্ছেন।

কিন্তু এখনও সৌদি আরবে যেকোন সরকারি চাকরি বা আমলাতান্ত্রিক কোন কাজ করতে গেলে একজন নারীর পুরুষ অভিভাবক দেখাতে হয়। এটা নারীদের অগ্রগতির জন্য প্রকৃতপক্ষেই একটি বাধা।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close