এশিয়া জুড়ে

দুতের্তে নিজেকে তুলনা করলেন হিটলারের সঙ্গে

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: নিজেকে তুলনা করেছেন জার্মানির নাজি নেতা অ্যাডলফ হিটলারের সঙ্গে।

তিনি বলেছেন, দেশটির প্রায় ৩০ লাখ মাদকসেবী ও বিক্রেতাকে নির্মূল করতে পারলে তিনি খুশি হবেন। দুতের্তের এমন মন্তব্য যুক্তরাষ্ট্রের ইহুদি সম্প্রদায়কে ক্ষুব্ধ করেছে। এতে ফিলিপাইনের এই নেতার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের আরও কঠোর হওয়ার বিষয়ে চাপ বাড়ছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

খবরে বলা হয়, শুক্রবার ভিয়েতনাম সফর শেষে দাভাও সিটিতে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সমালোচকরা তাকে হিটলারের জ্ঞাতি ভাই হিসেবে চিত্রিত করেছেন। হিটলার লাখ লাখ ইহুদি হত্যা করেছেন উল্লেখ করে দুতের্তে বলেন, ফিলিপাইনে লাখ লাখ মাদকাসক্ত রয়েছে। তাদের বধ করতে পারলে আমি খুশি হব।

নিজের দিকে নির্দেশ করে তিনি বলেন, জার্মানির ছিল হিটলার। ফিলিপাইনের রয়েছি আমি। আমার শিকার কারা হবেন আপনারা জানেন। সব অপরাধীকে নির্মূল করে দেশের সমস্যা দূর করতে ও পরবর্তী প্রজন্মকে নরকবাস থেকে বাঁচাতে চাই আমি।

দুতের্তের এমন বক্তব্যর নিন্দা জানিয়েছে ইহুদিরা। সাইমন উইসেন্থাল সেন্টারের ডিজিটাল টেরোরিজম অ্যান্ড হেট প্রজেক্টের প্রধান রাব্বি আব্রাহাম কুপার একে ভয়ানক বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি বলেন, দুতের্তের উচিত তার গণহত্যার শিকারদের প্রতি ক্ষমা চাওয়া উচিত তার ন্যাক্কারজনক বাগাড়ম্বরের কারণে।

যুক্তরাষ্ট্রে ইহুদিদের আন্তর্জাতিক সংগঠন অ্যান্টি-ডিফেমেশন লিগের ডিরেক্টর অব কমিউনিকেশন টড গুটনিক বলেন, মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের নির্বিচারে হত্যাকান্ডের শিকারদের সঙ্গে তুলনা করাটা অত্যন্ত অনুপোযোগী এবং অত্যন্ত আক্রমণাত্মক। কেন একজন নেতা তাকে ওইরকম (হিটলার) একজন দানবের সঙ্গে তুলনা করতে চাইবেন তা বিভ্রান্তিকর।

এর আগে অবশ্য নির্বাচনের সময় বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বেনিগনো অ্যাকুইনো সতর্ক করেছিলেন, দুতের্তের উত্থান গত শতকের বিশ ও ত্রিশের দশকে হিটলারের উত্থানের সঙ্গে তুলনীয়। প্রসঙ্গত, দুতের্তে এ বছরের মে মাসে অনুষ্ঠিত ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়লাভের পর ৩০শে জুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

এরপরই তিনি দেশটিতে মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর লড়াইয়ের ঘোষণা দেন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে মাদক ব্যবসায়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ৩ হাজারেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

এ পরিস্থিতিকে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো মানবাধিকারের লঙ্ঘন বলে সমালোচনা করলেও পিছু হটেননি দুতের্তে। বরং তিনি মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার জোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close