জাতীয়

বিদেশি নিয়োগকারীরা বিশ্বমানের বাংলাদেশী কর্মী চান

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নিয়োগকারীরা বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে আগ্রহী হলেও তাদের দাবি, এসব কর্মীকে বিশ্বমানসম্পন্ন ও দক্ষ হতে হবে। যে কাজে যাচ্ছে তা সম্পর্কে কর্মীদের যথেষ্ট অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

র্তমানে যে প্রচলিত প্রশিক্ষণ দিয়ে বাংলাদেশি কর্মীদের বিদেশে পাঠানো হচ্ছে তাতে সন্তুষ্ট নন নিয়োগকারীরা। এরই মধ্যে সরকারকে এ বিষয়ে পৃথক প্রতিবেদন দিয়েছে বিভিন্ন দেশে থাকা বাংলাদেশ দূতাবাস। অবশ্য দক্ষ কর্মী পাঠানোয় দিন-দিন বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র জানায়, যেসব দূতাবাস থেকে এ পর্যন্ত তথ্য পাওয়া গেছে সেগুলো হলোÑ সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), সৌদি আরব, কুয়েত, ওমান, বাহরাইন, কাতার, জাপান, স্পেন, জার্মানি, ইতালি, গ্রিস, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলো, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড।

বেশিরভাগ দূতাবাস জানায়, হেভি ইকুইপমেন্ট অপারেটর, ক্যাটারিং ও রন্ধনশিল্পে দ কর্মীর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।

পররাষ্ট্র ও প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বৈদেশিক কর্মসংস্থানে দ জনশক্তির চাহিদা বেড়েছে। সে বিষয় মাথায় রেখে কাজ করছে সরকার। প্রায় সব দেশের দূতাবাসকে দক্ষ কর্মীর চাহিদা জানাতে বলা হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে বিভিন্ন দেশের বাংলাদেশ দূতাবাসের পরামর্শ, প্রচলিত ট্রেডের বাইরে নতুন-নতুন ট্রেডের প্রশিক্ষণ দিয়ে কর্মী পাঠাতে হবে।

বাংলাদেশ-জার্মান কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্রের অধ্যক্ষ মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, বর্তমানে ১১টি ট্রেডে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

এগুলো হলো ইলেকট্রিক্যাল, কম্পিউটার, এয়ার কন্ডিশন অ্যান্ড রেফ্রিজারেশন, প্লামবিং অ্যান্ড পাইপ ফিটিং, অটো মেকানিক, ওয়েল্ডিং, মেশিন ট্রলস অপারেশন, সিভিল ড্রাফটিং, মেকানিক্যাল ড্রাফটিং, ইলেকট্রনিক্স ও রেডিও-টিভি মেকানিক।

তিনি আরও নতুন ট্রেড অন্তর্ভুক্ত করার পরামর্শ দিয়ে বলেন, মোবাইল ফোন সার্ভিসিং, ফুড প্রিজারভেশন ইত্যাদি কোর্সও খোলা যেতে পারে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close