যুক্তরাজ্য জুড়ে

বৃটিশ সিনিয়র মন্ত্রী ব্রেক্সিট বিষয়ে সতর্ক করলেন হাউজ অব লর্ডসকে

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: হাউজ অব লর্ডসকে সতর্ক করলেন বৃটিশ মন্ত্রীপরিষদের শীর্ষ স্থানীয় একজন মন্ত্রী। তিনি বলেছেন, যদি হাউজ অব লর্ডস ব্রেক্সিট প্রক্রিয়াকে আটকে দেয়ার চেষ্টা করে তাহলে এর ভবিষ্যত ঝুঁকিতে পড়বে। এ খবর দিয়েছে বৃটেনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

ল্লেখ্য, গত সপ্তাহে একই ওয়েবসাইট একটি খবর দেয়। তাতে বলা হয়, ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া নিয়ে চূড়ান্ত সমঝোতা তুলে ধরা হতে পারে বৃটিশ পার্লামেন্টে। এর সদস্যদের এর পক্ষে বা বিপক্ষে ভোট দেয়ার সুযোগ দেয়ার বিষয়টি ইতিবাচকভাবে নেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’র বাসভবন ১০ ডাউনিং স্ট্রিট। এ নিয়ে অনেক আলোচনা সমালোচনা চলছে। যারা বৃটেনকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে রাখার পক্ষে তারা এমন ইঙ্গিত পেয়ে ভীষণ খুশি।

অন্যদিকে সমাজ বিজ্ঞানী সহ অন্যরা বলছেন, যদি পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ভোটে দেয়া হয় এবং এ প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে ভোট পড়ে তাহলে পুরো প্রক্রিয়া অচল হয়ে পড়তে পারে। এমনই যখন শঙ্কা চারদিকে তখনই হাউজ অব লর্ডসকে ওই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ওই মন্ত্রী।

হাউজ অব লর্ডসের বেশ কিছু কনজার্ভেটিভের বেশ কিছু সদস্য তেরেসা মের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ব্রেক্সিট নিয়ে আলোচনা শুরুর আগেই এ বিষয়টি পার্লামেন্টে ভোটে দিতে। যদি প্রধানমন্ত্রী তাদের এ আহ্বান উপেক্ষা করেন তাহলে তারা আইনী অন্য প্রক্রিয়া অবলম্বন করে সরকারকে কোণঠাসা করে ফেলার হুমকি দিয়েছেন, যাতে ব্রেক্সিট নিয়ে হাউজ অব লর্ডসে প্রস্তাব পাস করতে বাধ্য হয় সরকার।

সরকারের ওই মন্ত্রী দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্টকে বলেছেন, গণভোটের মাধ্যমে জনগণ যে সিদ্ধান্ত দিয়েছে তার বাইরে যাওয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতার সঙ্গে চিন্তা করা উচিত অনির্বাচিতদের।

তিনি বলেছেন, আমাদের মধ্যে লয়েড জর্জ থাকা উচিত এবং হাজারো সমকক্ষ ব্যক্তি সৃষ্টি করা উচিত। উল্লেখ্য, কনজার্ভেটিভ অধ্যুষিত হাউজ অব লর্ডস যখন ১৯০৯ সালে ‘পিপলস বাজেট’ পাস করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল তখন লিবারেল চ্যান্সেলর লয়েড জর্জ একটি হুমকি দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, পিপলস বাজেট পাস করতে পারে এমন নতুন নতুন সদস্য সৃষ্টি করে হাউজ অব লর্ডস সয়লাব করে দেবেন তিনি।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close