ইউরোপ জুড়ে

ব্রেক্সিট সমঝোতায় সমান অংশীদারিত্ব চায় স্কটল্যান্ড

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ব্রেক্সিট সমঝোতায় সমান অংশীদারিত্ব চায় স্কটল্যান্ড। বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে উন্নত প্রশাসনিক কাঠামোর সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি করার আহ্বান জানানোর পর এমন দাবি করেছে স্কটল্যান্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টার্জেন সরকার।

য়েলস, উত্তর আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডের নেতাদের সঙ্গে ব্রেক্সিট ও নিজের অর্থনৈতিক পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করতে আগামী সপ্তাহে বৈঠকে বসছেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের পক্ষে ব্রেক্সিট গণভোট হওয়ার পর সোমবারই প্রথমবারের মতো যৌথ মন্ত্রীপরিষদ বিষয়ক কমিটির (জেএমসি) বৈঠক হতে যাচ্ছে।

সেখানে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া কিভাবে সর্বোত্ত পন্থায় সবাইকে নিয়ে সম্পন্ন করা যায় তা নিয়ে ওই চারটি অঞ্চলের প্রশাসনিক নেতাদের সঙ্গে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছে ১০ ডাউনিং স্ট্রিট। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন আইটিভি।

তবে বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী ব্রেক্সিট কঠোর ব্রেক্সিট প্রক্রিয়ার পক্ষে কথা বলেছেন বলে ওই বৈঠকের আগে স্কটল্যান্ডের শীর্ষ একজন কর্মকর্তা সতর্কতা উচ্চারণ করেছেন। ইউরোপে স্কটল্যান্ডের অবস্থান কি হবে তা নির্ধারণ করা নিয়ে একজন মন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তার নাম মাইকেল রাসেল।

তিনি বলেছেন, গণভোটের পর চার মাস চলছে। স্কটল্যান্ডকে কিভাবে হিসাবে নেয়া হবে সে বিষয়ে বৃটিশ সরকারের পক্ষ থেকে আমরা এখনও কোনো প্রস্তাব পাই নি। বৃটেন ক্রমাগত কঠোর ব্রেক্সিট প্রক্রিয়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এতে যে ক্ষতি হবে তাতে আক্রান্ত হবে স্কটিশ ও বৃটিশ অর্থনীতি।

এ জন্য ক্রমাগত উদ্বেগ বাড়ছে স্কটিশ সরকারে। বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী এরই মধ্যে ঘন্টাধ্বনি বাজিয়েছেন। তবে পুরোপুরিভাবে লিসবন চুক্তির ৫০ নম্বর অনুচ্ছেদ সক্রিয় করার আগের সময়টার সর্বোত্তম ব্যবহার করা উচিত বৃটিশ সরকারের। এরই মধ্যে স্বাধীনতার প্রশ্নে দ্বিতীয় গণভোটের একটি খসড়া প্রস্তুত করেছে নিকোলা স্টার্জেনের সরকার।

ব্রেক্সিট ভোটের পর স্কটিশরা এ বিষয়টি নতুন করে ভাবা শুরু করেছে। কিন্তু ডাউনিং স্ট্রিট মনে করছে স্বাধীনতার প্রশ্নে দ্বিতীয়বার গণভোট দেয়ার এক্তিয়ার নেই স্কটিশ সরকারের। সোমবারের আলোচনায় এ বিষয়টি উঠে আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

তেরেসা মে বলেছেন, আমি চাই সোমবারের এ বৈঠকটি উন্নত প্রশাসন ও বৃটিশ সরকারের মধ্যে একসঙ্গে কাজ করার এক নতুন সম্পর্ক রচনা করবে। এর ফলে আমরা সবাই একসঙ্গে কাজ করবো। তাতে যুক্তরাজ্যে সবার ভবিষ্যত নিশ্চিত হবে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close