Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

ট্রাম্প দায়িত্ব নেয়ার পর বাতিল হবে ওবামাকেয়ার: এখনও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামা

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেয়ার পর খুব দ্রুততার সঙ্গে বাতিল করে দেয়া হবে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার স্বাস্থ্যবীমা (হেলথকেয়ার) বিষয়ক আইন। এই আইনটি ওবামা-কেয়ার নামেও পরিচিত।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট এই কথাটি উচ্চারিত হলেই চোখে ভেসে ওঠে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিমান এক শাসকের ভাবচ্ছবি, যে শাসক তার ব্যক্তিত্ব, প্রভাব ও কর্মযজ্ঞের কারণে সারা দুনিয়ায় সব সময় আলোচিত মানুষ। কখনো-কখনো আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তার ভূমিকা তাকে বিতর্কিত ও ঘৃণিতও করে তোলে।

সেদিক থেকে বলা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা কোনো প্রকার ঝাঁজালো বিতর্কের আবর্তে নিজেকে না জড়িয়ে অনেকটা সাচ্ছন্দেই একটানা আট বছর সময় পার করলেন। হোয়াইট হাউসের প্রতিটা কোনায় কোনায় জড়িয়ে আছে স্মৃতি।

৮ই নভেম্বরের নির্বাচনে মার্কিন কংগ্রেসের উভয় কক্ষ সিনেট ও প্রতিনিধি পরিষদের নিয়ন্ত্রণ চলে এসেছে রিপাবলিকানদের হাতে। তাই তারা এরই মধ্যে ওবামাকেয়ার আইন বাতিল করে দেয়ার প্রস্তুতি শুরু করেছে। তারা প্রত্যাশা করছে খুব তাড়াতাড়িই তারা এটা করতে পারবেন। এসব কথা বলেছেন রিপাবলিকান সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা মিশ ম্যাককনেল। নির্বাচনে যখন ডনাল্ড ট্রাম্পের বিজয় তিনি নিশ্চিত দেখতে পান তখনই তিনি একটি বিবৃতি দেন।

তাতে তিনি বলেন, এটা (ওবামাকেয়ার) বাতিল করা আমাদের এজেন্ডাগুলোর মধ্যে অগ্রাধিকারে রয়েছে। আপনারা তা জানেন। আমরা যদি এটা বাতিল করতে অগ্রসর না হই এবং আমেরিকার মানুষকে দেয়া প্রতিশ্রুতি না রাখি তাহলে আমি হতাশ হবো। উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ওবামাকেয়ার চালু করেন।

এটাকে সবচেয়ে বাজে একটি আইন বলে উল্লেখ করেছেন ম্যাককনেল। নির্বাচনী প্রচারের সময়ও এ আইনটি বাতিল করার কথা জোরালোভাবে বলেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওবামাকেয়ার আইনের আওতায় প্রায় এক কোটি ১০ লাখ মার্কিনি রাজ্যে অথবা কেন্দ্রীয় ইন্সুরেন্স সুবিধা পাচ্ছেন। প্রায় দেড় কোটি মানুষ মেডিকেইডের সুবিধা পাচ্ছেন। মার্কিন স্বাস্থ্য কর্মসূচির আওতায় দরিদ্র মানুষরা এসব সুবিধা পান। এ আইনটি বাতিল করার জন্য রিপাবলিকানরা এ যাবত ৬০ বার মার্কিন কংগ্রেসে চেষ্টা করেছে। কিন্তু প্রতিবারই তারা ব্যর্থ হয়েছে।

ঐতিহ্যবাহী প্রেসিডেন্ট নিবাসে বারাক ওবামার মেয়াদ এবার শেষ। গুডবাই বলার পালা। মন যে চায় না, তবুও…যেতে তো হবেই। সেই মতই সব ঠিক। লাস্ট সাপার সেরে ফেলেছেন। ফার্স্ট লেডি আর মেয়েদের নিয়ে অন্যত্র বাসা বাঁধার পরিকল্পনা করতে শুরু করেছেন মাত্র, না, আপনি থাকছেন স্যার, এই ফোন কলেই বাড়ল হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার মেয়াদ।

২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারী পর্যন্ত আমেরিকার প্রেসিডেন্ট থাকছেন বারাক ওবামাই, জানিয়ে দিল হোয়াইট হাউসের দায়িত্বে থাকা সেক্রেটারি যশ আর্নেস্ট।

তবে হোয়াইট হাউসের চাবি নব নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাতে মসৃণ ভাবে হস্তান্তর হবে বলেই জানিয়েছেন বারাক ওবামা। তিনি বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর বড়সড় মত পার্থক্য আছে। কিন্তু ক্ষমতার হস্তান্তরটা মসৃণ ভাবেই হবে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close