ভারত জুড়ে

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ১৪৩ জন

শীর্ষবিন্দু আন্তজাতিক নিউজ ডেস্ক: ভারতের কানপুরে রেল দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে কমপক্ষে ১৪৩। এখনও চলছে সেখানে উদ্ধার অভিযান। অনলাইন জি নিউজ এ খবর দিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ইন্দোর-পাটনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি রোববার লাইনচ্যুত হয়ে আহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দু’শতাধিক। এর মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ফলে নিহতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। ঘটনাস্থলে উদ্ধার তৎপরতায় রেলওয়ে, সেনাবাহিনী সহ জাতীয় দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা বাহিনী সহ ৫টি টিম একসঙ্গে কাজ করছে।

রোববার ভোর ৩টার সময় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। তখন ট্রেনের যাত্রীরা ছিলেন গভীর ঘুমে। এ সময় ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়। ঘুম ভেঙে মানুষ বাঁচার আপ্রাণ চেষ্টা করে।

কিন্তু ঘুমের ভিতর ঘটে যাওয়া এমন ঘটনায় তাদের বেশির ভাগই তাল বুঝে উঠতে পারেন নি। ফলে নিহতের সংখ্যা অনেক বেশি। চারটি বগি মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে এস-১ এবং এস-২ বগি একটি আরেকটির ওপরে উঠে যায়। এ দুটি বগিতেই বেশি মানুষ মারা গিয়েছে। এস-৩ এবং এস-৪ বগি দুটিতেও অনেক প্রাণহানী হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে ৬২ জনকে সনাক্ত করা গেছে। তার মধ্যে কমপক্ষে ২০ জন উত্তর প্রদেশের, ১৫ জন মধ্য প্রদেশের, ৬ জন বিহারের। মহরাষ্ট্র ও গুজরাটের একজন করে রয়েছেন নিহতদের মধ্যে। নিহতদের মধ্যে ২৭ জনের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। দেহগুলো তুলে দেয়া হয়েছে তাদের স্বজনদের কাছে। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন সেনাবাহিনীর একজন সদস্য প্রভু নারায়ণ সিং, বিএসএফের অনীল কিশোর, পুলিশ কনস্টেবল লক্ষণ সিং। বাকি মৃতদেহ সনাক্ত করা যায় নি।

ওই ট্রেনের এক আরোহী, যিনি বেঁচে আছেন, তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ভোর ৩টার পরে অজ্ঞাত কারণে ট্রেনটি থেমে যায়। তারপরই আবার গতি বাড়াতে থাকে। এ সময়ে আমার গা শিউরে ওঠে। মনে হয় ট্রেনটি কোনো এক উপত্যকার গায়ে আছড়ে পড়েছে। পরে জানতে পারি আমার বগির ২০ থেকে ২৫ জন মানুষ নিহত হয়েছেন। ৬ বছর বয়সী একটি মেয়ে দু’টুকরো হয়ে গেছে।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close