Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

ওয়াশিংটনে ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ওয়াশিংটনে বিক্ষোভ করেছেন নাগরিক অধিকারকর্মীরা। অধিকারকর্মী জন লুইসকে নিয়ে কটাক্ষমুলক মন্তব্য করেন ট্রাম্প। তার পরই এমন বিক্ষোভ হলো।

তে ট্রাম্পের শাসনামলে নাগরিক অধিকারের পক্ষে লড়াই করার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন অধিকারকর্মীরা। এমন অধিকারের পক্ষে শনিবারই তারা বিক্ষোভ শুরু করেছেন ওয়াশিংটনে। এ সপ্তাহেই আগামী শুক্রবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ডনাল্ড ট্রাম্প।

কিন্তু ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন না ডেমোক্রেট দলের কংগ্রেস সদস্য, রাজনীতিবিদ ও বিনোদন জগতের অনেক তারকা। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও বিবিসি।

নাগরিক অধিকার আন্দোলন নিয়ে কাজ করেন ডেমোক্রেট দলের কংগ্রেস সদস্য জন লুইস। তাকে নিয়ে ডনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট করেছেন। তাতে তিনি বলেছেন, জন লুইস শুধু বকবক করে। তিনি অকাজের লোক। তার উচিত নিজের রাজ্যের দিকে নজর দেয়া। ট্রাম্পের এমন টুইটে চটেছেন জন লুইস ও তার সমর্থকরা।

উল্লেখ্য, ১৯৬০ এর দশকে যুক্তরাষ্ট্রে নাগরিক অধিকার আন্দোলনের অন্যতম সংগঠন এই জন লুইস। ১৯৬৩ সালে ওয়াশিংটনে মার্টিন লুথার কিং-এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত পদযাত্রায় যারা বক্তব্য রেখেছিলেন তাদের মধ্যে জন লুইস অন্যতম। তিনি ছাড়া ওই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখা আর কেউ এখন বেঁচে নেই। তাকে নিয়ে ট্রাম্পের এমন তীর্যক বাক্য পছন্দ হয়নি রিপাবলিকান কংগ্রেস সদস্যদেরও। রিপাবলিকান ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক ধারাভাষ্যকার বিল ক্রিস্টল বলেছেন, ট্রাম্প শুধু রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লদিমির পুতিনকেই সম্মান করেন।

এর আগে ট্রাম্পকে বৈধ প্রেসিডেন্ট বলে মনে করেন না বলে মত দেন জন লুইস। নাগরিক অধিকারের পক্ষে আন্দোলনকারীরা শনিবার ওয়াশিংটনে সমবেত হন মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র মেমোরিয়ালে। বৃষ্টি উপেক্ষা করে সেখানে যোগ দেন প্রায় ২ হাজার বিক্ষোভকারী।

এর মধ্যে বেশির ভাগই কৃষ্ণাঙ্গ। সেখানে বক্তারা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অধিকার ও প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার স্বাস্থ্য বিষয়ক ওবামাকেয়ার আইন রক্ষার বিষয়ে তাদের জোরালো অবস্থান তুলে ধরেন। এ বিক্ষোভের আয়োজক নাগরিক অধিকার বিষয়ক বর্ষীয়ান নেতা রেভারেন্ড আল শার্পটন।

তিনি বলেন, কংগ্রেসে ডেমোক্রেটদের কাছে একটি বার্তাই পৌঁছে দেয়া দরকার। তাহলো মেরুদন্ড সোজা রাখতে হবে। আমরা বৃষ্টি উপেক্ষা করে এই বিক্ষোভ করছি। এর কারণ একটিই। তাহলো জাতিকে বোঝানো যে, আমরা কিসের জন্য লড়াই করেছি এবং কি অর্জন করেছি।

উল্লেখ্য, আয়োজকরা শুরুতে যে পরিমাণ মানুষের সমাবেশ ঘটাতে পারবেন বলে মনে করেছিলেন উপস্থিতি সেই আশানুরূপ হয় নি। তবু শার্পটন বলেন, এই উপস্থিতিতেই তিনি সন্তুষ্ট। কারণ, বৃষ্টি ও হিমাঙ্কের সামান্য উপরে তাপমাত্রা। এ জন্য মানুষের সমাগম প্রত্যাশা অনুযায়ী হয় নি।

উল্লেখ্য, নিউ ইয়র্কের রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী, বিলিয়নিয়ার ডনাল্ড ট্রাম্প এবার যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন। তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির মধ্যে রয়েছে, মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ করা। যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিম দেশগুলো থেকে অভিবাসীদের যাওয়ার ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ। ওবামাকেয়ার বাতিল করা। ডোনাল্ড ট্রাম্প তার এটর্নি জেনারেল হিসেবে বেছে নিয়েছেন আলাবামার রিপাবলিকান দলের সিনেটর জেফ সেশনসকে। তিনি এরই মধ্যে আরও কিছু ইস্যুতে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছেন।

বলেছেন, সংখ্যালঘুদের ভোটের অধিকার দুর্বল করে দিতে পারেন ট্রাম্প। অপরাধ বিষয়ক বিচারিক নিয়মকানুন সংস্কার করতে পারেন। এ বক্তব্যের ফলে নাগরিক অধিকারকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ। তাই ওই বিক্ষোভে ন্যাশনাল এসোসিয়েশন ফর দ্য এডভান্সমেন্ট অব কালারড পিপল-এর প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্নেল উইলিয়াম ব্রুকস বলেছেন, নরক নিভে না যাওয়া পর্যন্ত আমরা বিক্ষোভ করে যাবো।

আবহাওয়ার ইস্যু তুলে ধরে তিনি বলেন, আমরা বরফের ওপরে বিক্ষোভ করবো। এই বিক্ষোভে যোগ দেন লা রাজা নামের হিস্প্যানিক গ্রুপ, রাজনীতিক, পুলিশের হাতে নিহত আফ্রিকান বংশোদ্ভুত আমেরিকানদের আত্মীয়রা, ন্যাশনাল আরবান লীগ, প্লানড প্যারেন্টহুড অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস ক্যাম্পেইন। এর মধ্যে সমকামী সম্প্রদায়ের জন্য কাজ করে শেষোক্ত সংগঠন।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close