যুক্তরাজ্য জুড়ে

রিফুজি শিশুদের আশ্রয় বাতিল করলেন থেরেসা মে

শীর্ষবিন্দু নিউজ ডেস্ক: অভিভাবকহীন সিরিয়ান শিশুদের আশ্রয় প্রদান প্রকল্প বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্যের থেরেসা মে সরকার। এমন ঘোষণাকে যুক্তরাষ্ট্রের বিতর্কিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শরণার্থী আশ্রয় প্রদান প্রকল্প বাতিলের সঙ্গে তুলনা করে এর তীব্র সমালোচনা উঠেছে।

বলা হচ্ছে, থেরেসা মের সরকার ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতোই আচরণ করছে। অভিভাবকহীন শিশুদের দেখভালের ঝামেলা এবং ব্যয়সংকুলানের অজুহাত তুলে গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাম্বার রাড ওই প্রকল্প বাতিলের ঘোষণা দেন।

তিনি জানান, ইতিমধ্যে ২০০ শিশুকে যুক্তরাজ্যে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। আরও ১৫০ জন শিশু যুক্তরাজ্যে আসার অপেক্ষায়। ওই সব শিশু এসে পৌঁছালেই প্রকল্পটি বাতিল হবে।

যুক্তরাজ্য থেকে অবৈধ অভিবাসী বিতাড়ন সহজ করতে গত বছর সরকার সংসদে একটি বিল উত্থাপন করে। সংসদের উচ্চকক্ষ হাউস অব লর্ডসের সদস্য আলফ্রেড ডাবস ওই বিলে অভিভাবকহীন অন্তত তিন হাজার শরণার্থী শিশুকে আশ্রয় প্রদানের বিষয়টি যুক্ত করার প্রস্তাব আনেন।

সরকারি দলের পাঁচ এমপি ছাড়া বাকি এমপিরা প্রস্তাবটির বিপক্ষে ভোট দেন। কিন্তু বিরোধী দলগুলোর সমর্থনে অল্প ভোটের ব্যবধানে ওই প্রস্তাব পাস হয়। সরকারের কড়া সামোলোচনা করে আলফ্রেড ডাবস বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থী প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছেন, ঠিক সে সময় ব্রিটিশ সরকারের এমন ঘোষণা লজ্জাজনক।

শনিবার তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি পিটিশন দাখিল করেন। যাতে আশ্রয় প্রকল্প বাতিলের উদ্যোগ থেকে সরে আসার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close