ভারত জুড়ে

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নভঙ্গ: চিনাম্মা’র ৪ বছরের কারাদণ্ড

শীর্ষবিন্দু আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক: সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। ‘আম্মা’খ্যাত ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের সদ্য প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম জয়ললিতা তথা আম্মা’র উত্তরসূরী হিসেবে আসার কথা ছিল তাঁর বহুদিনের সঙ্গী ভি কে শশীকলা নটরাজনের।

চিনাম্মা (ছোট মা) হিসেবে পরিচিত তামিলনাড়ুর ক্ষমতাসীন দল এআইএডিএমকের পুরো সমর্থনও ছিল তাঁর পেছনে। কিন্তু সেই স্বপ্ন ভঙ্গ হলো। একটি মামলায় তাঁকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি রাখার এক মামলায় শশীকলাকে ৪ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। এর আগে এই মামলায় শশীকলাকে মুক্তি দিয়েছিলেন তামিলনাড়ুর হাইকোর্ট। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট হাইকোর্টের সেই রায়কে আমলে না নিয়ে তামিলনাড়ুর নিম্ন আদালতের সিদ্ধান্তকেই বহাল রাখলেন।

সুপ্রিম কোর্টের আদেশে চার বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১০ কোটি টাকা জরিমানা দিতে হবে শশীকলা নটরাজনকে। এছাড়া অনতিবিলম্বে নিম্ন আদালতে আত্মসপর্মণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাঁকে। অর্থাৎ আগামী ১০ বছর নির্বাচনে দাঁড়াতে পারবেন না তিনি। এর আগে গত সপ্তাহে তামিলনাড়ুর ক্ষমতাসীন দল এআইএডিএমকের পক্ষে থেকে পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শশীকলার নাম ঘোষণা করা হয়।

গত বছর ডিসেম্বরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম জয়ললিতার মৃত্যুর পর থেকেই তাঁর স্থলাভিষিক্ত হিসেবে শশীকলার নাম শোনা যাচ্ছিল। আর সেই কানাঘুষাকেই সত্যি প্রমাণ করে দলের মুখপাত্র সি আর সারওয়ার্থী বলেছিলেন, তিনিই (শশীকলা) তামিলনাড়ুর পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী। জনগণের সেবার জন্য আমরা আম্মার মতো শক্তিশালী নারী নেত্রী চাই।

এদিকে শশীকলার এই সাজায় নিশ্চয়ই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন ভি কে পান্নেরসেলভাম। কারণ আম্মার প্রয়াণের পর এই পদের জন্য শশীকলার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন একমাত্র তিনিই। এটা নিয়ে দুজনের কথা কাটাকাটিও চলছিল।

সর্বশেষ গতকাল সোমবারও এক ভাষণে পান্নেরসেলভামের বিরুদ্ধে উসকানির অভিযোগ উঠিয়েছিলেন শশীকলা। কিন্তু আম্মার প্রতি প্রবল আস্থায় পান্নেরসেলভাম ছিলেন অনড়। তিনি কোনো কথাই বলেননি। এর আগে দলের সিদ্ধান্ত মেনে গত সপ্তাহে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন পান্নেরসেলভাম।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close