অর্থনীতি

উত্তর কোরিয়া জড়িত থাকার আরো প্রমাণ পাওয়া গেছে বাংলাদেশের রাজকোষ চুরিতে

অর্থনীতি ডেস্ক: বাংলাদেশের রাজকোষ চুরিতে উত্তর কোরিয়া জড়িত থাকার আরো প্রমাণ পাওয়া গেছে। সাইবার নিরাপত্তাবিষয়ক প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কি ল্যাব এ কথা বলেছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

তারা বলেছে, এই চুরিতে যে উত্তর কোরিয়া জড়িত সে বিষয়ে তারা ডিজিটাল প্রমাণ হাতে পেয়েছে। এতে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার হ্যাকার গ্রুপ লাজারাস-এর ওপর প্রস্তুত করা ৫৮ পৃষ্ঠার রিপোর্ট সোমবার প্রকাশ করেছে রাশিয়াভিত্তিক ক্যাসপারস্কি। লাজারাস গ্রুপের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতে জড়িত থাকা ও ২০১৪ সালে সনির হলিউড স্টুডিওতে হামলা চালানোর সঙ্গে জড়িত থাকার কথা বলা হয়েছে।

এসব চুরিতে উত্তর কোরিয়া জড়িত থাকার অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্র সরকার আগেই করেছে। ক্যাসপারস্কি তার রিপোর্টে বলেছে, লাজারাস হ্যাকাররা উত্তর কোরিয়ার একটি আইপি এড্রেসের মাধ্যমে ইউরোপের একটি সার্ভারের সরাসরি যুক্ত হয়েছিল। এই সার্ভারের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় আক্রমণ চালিয়েছিল তারা।

ক্যাসপারস্কির গবেষক ভিতালি কামলুক বলেছেন, প্রথমবারের মধ্যে আমরা উত্তর কোরিয়া ও লাজারাসের মধ্যে সরাসরি যোগাযোগ দেখতে পেয়েছি। এর আগে ওয়াশিংটন, দক্ষিণ কোরিয়া ও নিরাপত্তাবিষয়ক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারাও একই রকম অভিযোগ করেছিলেন। কিন্তু সে অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে উত্তর কোরিয়া।

ভিতালি কামলুক বলেছেন, তারা এখনই শতভাগ নিশ্চিত হয়ে বলতে পারছেন না, এই সাইবার হামলার পেছনে পিয়ং ইয়ং ছিল। কারণ, এমনটাও হতে পারে, হ্যাকাররা এমনভাবে কাজ করেছে যেটা দেখে মনে হতে পারে তারা হামলা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া থেকে অথবা উত্তর কোরিয়ানরা অন্যদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করেছে।

তবে এতে উত্তর কোরিয়ার জড়িত থাকার পক্ষেই বেশির ভাগ তথ্য যায়। অন্যদিকে গত মাসে ভিন্নভাবে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা সন্দেহের আঙুল তুলেন পিয়ং ইয়ংয়ের দিকে। এ নিয়ে তদন্তের সঙ্গে জড়িত এক কর্মকর্তা ওয়াশিংটনে বলেছিলেন, এ হামলার জন্য উত্তর কোরিয়াই দায়ী বলে বিশ্বাস করে এফবিআই।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থার (এনএসএ) উপপরিচালক রিক লেজেট সাংবাদিকদের বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি নিয়ে উত্তর কোরিয়াকে দায়ী করার ক্ষেত্রে বেসরকারি গবেষণা বা অনুসন্ধানে যা বেরিয়ে আসছে তা শক্তিশালী বার্তা দেয়। যদি এটা সত্য হয় তাহলে আমার কাছে তার অর্থ হলো, উত্তর কোরিয়ানরা ব্যাংক ডাকাতি করছে।

ক্যাসপারস্কি বলেছে, লাজারাসের বিভিন্ন বিভাগ আর্থিক উদ্দেশে টানা সাইবার হামলা চালিয়ে যায়। তার মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ চুরি অন্যতম। তারা কমপক্ষে ১৮টি দেশের ব্যাংক, আর্থিক-বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, ক্যাসিনো ও ডিজিটাল পদ্ধতিতে মুদ্রা ব্যবসা হয় এমন স্থানে টার্গেট করেছিল।

সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান বিএই সিস্টেমস পিএলসির হুমকিবিষয়ক গোয়েন্দা বিভাগের প্রধান আদ্রিয়ান নিশ বলেছেন, ক্যাসপারস্কির অনুসন্ধান গুরুত্বপূর্ণ, যদিও তারা রিপোর্টের সারমর্মে পৌঁছেনি। অবশ্যই এটা আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

আরও দেখুন...

Close
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close