লন্ডন থেকে

উন্নয়ন কাজ সম্পর্কে অবহিত করতে পপলার হারকার সংবাদ সম্মেলন

শীর্ষবিন্দু নিউজ: পূর্ব লন্ডনের বহুল জনবসতি এলাকা টাওয়ার হ্যামলেটস বারায় অবস্থিত পপলার হারকা একটি পরিচিত হাউজিং গ্রুপ। সেন্ট পলস ওয়ে এলাকায় রিজেনারেশন স্কিম বা উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনের শুক্রবার দুপুরে আয়োজন করে এক সংবাদ সম্মেলন।

পলার হারকার চীফ এক্সিকিউটিভ স্টিভ স্ট্রাইড তার সাবলিল উপস্থাপনায় তুলে ধরেন, গবীর বারা বলে খ্যাত টাওয়ার হ্যামলেটস বারার সেন্ট পলস ওয়ে এলাকায় তাদের কর্ম বিশাল পরিকল্পনা। যা ইতিমধ্যে অধিকাংশ শেষ হলেও রয়ে গেছে অসমাপ্ত কাজ।

তিনি বলেন, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল, বার্ডেট এস্টেট মসজিদ (বিবিসিএ), দ্যা সেন্ট পলস ওয়ে ট্রাস্ট স্কুল , টেলফোর্ড হোমস এবং স্থানীয় কমিউনিটির সাথে অংশিদারিত্বের ভিত্তিতে বিশাল এই পূণ:উন্নয়ন পকল্ড বাস্তবায়ন করছে সোশ্যাল ল্যান্ডলর্ড পপলার হারকা। বহু মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয়ে বাস্তবায়নাধীন এই উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে নতুন স্কুল, নতুন মসজিদ, নতুন স্বাস্থ্য কেন্দ্র, ১০৯টি নতুন ঘর, পার্ক, খেলার স্থানও নতুন ক্যাফে নির্মাণ।

পপলার হারকার নেতৃত্বে বেশ কয়েকটি উন্নয়ন পার্টনাদের সহযোগিতায় পপলার এলাকার উন্নয়নে ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন পাউন্ডের যে বিশাল উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে, তারই অংশ হিসেবে সেন্ট পলস্ এলাকার এই প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলছে। বিশাল এই উন্নয়ন প্রকল্পের কারণে ব্যাক্তি, কমিউনিটি ও ব্যবসা বানিজ্যের প্রসারে অনেক সুযোগ সৃষ্টি হবে।

তিনি আরো বলেন, বার্ডেট এস্টেট মসজিদ ২১শে এপ্রিল এলাকার বাসিন্দাদের জন্য খুলে দেয়া হয়। মসজিদ কমিটি এবং স্থানীয় কমিউনিটির সাথে খুবই নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে পপলার হারকা। এছাড়াও তিনি উল্লেখ করেন, লাইমবারা গ্রিন কমিউনিটি গার্ডেন যেখানে রয়েছে। যেখানে বাচ্চাদের খেলার উপযোগী পরিবেশসহ সবুজের সমারোহ।

চীফ এক্সিকিউটিভ বলেন, টাওয়ার হ্যামলেটসে পড়াশুনা বা  কাজের ক্ষেত্রে লিডারশীপে যুবকদের নিয়ে একটি চ্যারিটি প্রতিষ্টিত হয় ২০০৬ সালে। যেখানে তরুন-যুবকরা তাদেরকে লীডারশপের জন্য তৈরী করতে পারবেন। বিস্তারিত জানেত www.licprojects.org ভিজিট করা যাবে।

সেন্ট পলস ওয়ে সেন্টার ও বো ব্রিউ ক্যাফে নামে সেন্টারে কমিউনিটির কার্যক্রম ও ট্রেনিং এবং হ্যালথ সেশন ছাড়াও প্লেপেন কো-ওয়ার্ক ক্রাস সার্ভিস রয়েছে। বারার অন্যান্য ১২টার মধ্যে একটি একটি সার্ভিস প্রদান করছে পপলার হারকা। এই ক্যাফে খুলে দেয়া হবে ১৫ই মে ২০১৭ তারিখে।

এছাড়াও রয়েছে পপলার প্যাডেল যেখানে ৬০ জন নির্ধারিত মেম্বার রয়েছেন তারা সহায়তা করবেন কিভাবে নতুনরা সহায়তা সেহজে শিখতে পারেন। এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে www.poplarpeddlers.club ভিজিট করা যাবে।

সাংবাদিকদের নিয়ে পরিদর্শন করানো হয় সেন্ট পলস ওয়ে মেডিক্যাল সেন্টার। এই সেন্টারে স্থানীয় বাসিন্দাদের চিকিৎসা সেবা দেবে জিপি সার্জারী। এটার অস্থান উইলিয়াম কটন প্যালেসে। যা জানুয়ারী ২০১৭ সাল থেকে সেবা দিয়ে আসছে।

নব নির্মিত বার্ডেট এস্টেট মসজিদ ও ক্যাফে সহ অন্যান্য উন্নয়ন প্রকল্প সম্পর্কে কমিউনিটিকে অবহিত করতে ১২ই মে পপলার হারকার আমন্ত্রণে একদল সাংবাদিক সেন্ট পলস এলাকা পরিদর্শন করেন।

উল্রেখ্য, ১৯৯৮ সালে পপলার হারকা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর ৯৫০০ বাসস্থানের ব্যবস্থা করে পপলার, বো এবং মাইল্যান্ড ইস্ট এলাকায়।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close