Americaযুক্তরাষ্ট্র জুড়ে

সৌদি আরবে হামলার হুমকি আইএসের

শীর্ষবিন্দু আন্তজাতিক নিউজ: ইরানে হামলার দায় স্বীকার করার পর এবার সৌদি আরবে হামলার হুমকি দিয়েছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। ইরানে হামলার পর এক ভিডিও বার্তায় আইএস এই হুমকি দেয় বলে জানিয়েছে সাইট ইন্টেলিজেন্স।

ইরানের রাজধানী তেহরানে পার্লামেন্ট ও আয়াতুল্লাহ খোমেনির মাজারে বুধবার বন্দুক ও আত্মঘাতী হামলায় ১৭ জন নিহত ও অনেক মানুষ আহত হন। এই দুই হামলার দায় স্বীকার করে আইএস। এ ছাড়া শিয়া অধ্যুষিত ইরানে আরো হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছে এই জঙ্গিগোষ্ঠীটি।

তেহরান হামলার আগে ধারণ করা আইএসের এক ভিডিও প্রকাশ করেছে সাইট ইন্টেলিজেন্সের ওয়েবসাইট। এতে মুখোশধারী আইএসের পাঁচ সন্ত্রাসীকে ইরানের শিয়াদের বিরুদ্ধে হুমকি দিতে দেখা যায়। তারা সৌদি আরবকেও হুমকি দেয়- এরপর তোমাদের পালা আসছে।

সৌদি সরকারের প্রতি এক বার্তায় এক মুখোশধারী বলেন, ‘জেনে রাখো, ইরানের পর তোমাদের পালা আসছে। আল্লাহর কসম, তোমাদের দেশেই তোমাদের ওপর হামলা করব। আমরা কারো হুকুমের গোলাম নই। আমরা আল্লাহ ও তার প্রেরিত নবীকে মানি। ইরান বা আরব উপদ্বীপের জন্য নয়, আমরা যুদ্ধ করছি ধর্মের জন্য।’

সিরিয়া ও ইরাকের বেশ কিছু অঞ্চল দখলকারী আইএস এরই মধ্যে সৌদি আরবে কয়েকটি হামলার দায় স্বীকার করেছে এবং সৌদি সাম্রাজ্যে শিয়াদের ওপর হামলার অঙ্গীকার করেছে।

এদিকে, ইরানি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তেহরানে হামলকারীদের মধ্যে পাঁচজন আইএসের নিয়োগকৃত ইরানি নাগরিক। তবে ইরানের শক্তিশালী বিপ্লবী রক্ষী বাহিনী এ হামলার জন্য আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী সৌদি আরবকে দায়ী করেছে। তবে সুন্নিপন্থি সৌদি আরব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

আইএস এমন সময় সৌদি আরবে হামলার হুমকি দিল যখন কাতারের সঙ্গে সৌদি আরবসহ কয়েকটি দেশ সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেওয়ায় চরম কূটনৈতিক উত্তেজনা বিরাজ করছে মধ্যপ্রাচ্যে। কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসে অর্থায়ন ও সহায়তার অভিযোগ এনে দেশটির সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করেছে সৌদি আরব, বাহরাইন, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং তাদের কয়েকটি মিত্র দেশ।

Tags

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করেছে সাইন সফট লিমিটেড
Close